৭ মার্চের ভাষণ চেতনার অগ্নিমশাল

23

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ড
ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর প্রদীপ চক্রবর্তী বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ রাজনীতির এক মহাকাব্য। এক অমর, অনবদ্য সৃষ্টি। এ ভাষণ বাঙালির সংকটে, সংগ্রামে প্রেরণার উৎস। যতদিন বাঙালির ইতিহাস থাকবে, ততদিন এ ভাষণ বাঙালির কাছে চেতনার অগ্নিমশাল হয়ে থাকবে।
মুজিব শতবর্ষ উদযাপন কমিটির আহবায়ক প্রফেসর আবদুল আলীম এর সভাপতিত্বে ও বোর্ডের উপ-সচিব মোহাম্মদ বেলাল হোসেন এর সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক নারায়ণ চন্দ্র নাথ, কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর মো. জাহেদুল হক, বিদ্যালয় পরিদর্শক ড. বিপ্লব গাঙ্গুলী, উপ-পরিচালক (হিসাব ও নিরীক্ষা) তাওয়ারিক আলম প্রমুখ। এর আগে সকাল ৯টায় বোর্ড চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়। এরপরই সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর উপস্থিতিতে শুরু হয় আলোচনা সভা।
চুয়েট
চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) এ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ যথাযথ মর্যাদায় উদ্যাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলমের নেতৃত্বে সকাল ৯টকায় র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে স্বাধীনতা চত্ত্বর সংলগ্ন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়। এরপর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম।
এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রশাসনিক ভবনের কাউন্সিল কক্ষে ঐতিহাসিক মার্চের পটভূমি ও রাজনৈতিক গুরুত্ব নিয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। চুয়েটে জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটির সভাপতি ও পুরকৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মো. রবিউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডীন ও ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. রেজাউল করিম, স্থাপত্য ও পরিকল্পনা অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মো. মইনুল ইসলাম, যন্ত্রকৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. জামাল উদ্দীন আহম্মদ, রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী ও মুজিব বর্ষ বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. রনজিৎ কুমার সূত্রধর।
রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রাম
বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি চট্টগ্রাম জেলা ও সিটি ইউনিটের যৌথ আয়োজনে যুব রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের ব্যবস্থাপনায় দিনব্যাপী ব্যাপক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাতির পিতার ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ ভাষণ দিবস উদ্যাপন করা হয়। কর্মসূচির শুরুতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং রেড ক্রিসেন্ট কার্যালয়ের সামনে নির্মিত জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়। দিবসের গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরে আলোচনা সভা সোসাইটির ব্যবস্থাপনা পর্ষদ সদস্য ও জেলা রেড ক্রিসেন্টের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ডা. শেখ শফিউল আজম সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। বিশেষ অতিথি ছিলেন সিটি রেড ক্রিসেন্টের সেক্রেটারী আবদুল জব্বার, জেলা রেড ক্রিসেন্টের সেক্রেটারী মো. আসলাম খান। উপস্থিত ছিলেন সিটি ইউনিটের কার্যকরী পর্ষদ সদস্য আনোয়ার আজম, জেলা ইউনিটের কার্যকরী পর্ষদ সদস্য রাশেদ খান মেনন, শাহাদাত হোসেন রুমেল, জেলা ইউনিটের কার্যকরী পর্ষদ সদস্য ও যুব রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের যুব প্রধান মো. ইসমাইল হক চৌধুরী ফয়সাল, চট্টগ্রাম জেলা ইউনিটের ইউনিট লেভেল অফিসার আবদুর রশীদ খান চট্টগ্রাম সিটি ইউনিটের ইউনিট লেভেল অফিসার মুহাম্মদ ইয়াহইয়া বখতিয়ার, রেড ক্রিসেন্ট মাতৃসদন হাসপাতালের ইনচার্জ মো. মোস্তাফিজুর রহমান, হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা আরশাফ উদ দৌলা সুজন, জেলা রেড ক্রিসেন্ট উচ্চমান সহকারী রফিকুল কাদের, যুব রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের যুব উপ প্রধান-২ মো. মঈনুল ইসলাম, স্বাস্থ্য ও সেবা বিভাগীয় প্রধান জনি চৌধুরী, বন্ধুত্ব ও সাংস্কৃতিক বিভাগীয় প্রধান গাজী মো. ইফতেকার হোসেন ইমু, ক্রীড়া, প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগীয় প্রধান কৃষ্ণ দাশ সহ যুব সদস্যরা।
দুবাই বাংলাদেশ কনস্যুলেট
যথাযথ মর্যাদায় বাংলাদেশ কনস্যুলেটের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালিত হয়েছে। সকালে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।
দুবাইয়ে নিযুক্ত বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল মো. ইকবাল হোসাইন খানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় রাষ্ট্রপতির বাণী পাঠ করেন কমার্শিয়াল কাউন্সেলর কামরুল হাসান, প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন লেবার কাউন্সেলর ফাতেমা জাহান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ডেপুটি কনসাল জেনারেল মো. সাহেদুল ইসলাম। কাউন্সেলর ও দূতালয় প্রধান প্রভাষ লামারং এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন প্রকৌশলী আবু জাফর চৌধুরী, বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের সিনিয়র সহ-সভাপতি আইয়ুব আলী বাবুল, অধ্যাপক আবদুস সবুর, সাংবাদিক সাইফুর রহমান, আবুল কাশেম সহ কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ। আলোচনা শেষে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।-ইউএই প্রতিনিধি
এমপি লতিফের কার্যালয়ে সভা
ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে এম এ লতিফ এমপি’র উদ্যোগে ৩নং জেটি গেইটস্থ দলীয় কার্যালয়ে সকাল ১১টায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ৩৯নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর মো. আসলাম’র সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুল হক মিয়া। ব্যারিস্টার কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি জাহিদ হোসেন খোকন’র সঞ্চালনা বক্তব্য রাখেন লবণ শ্রমিকলীগের সভাপতি আব্দুল মতিন মাস্টার, ৩৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ’র আইন বিষয়ক সম্পাদক জাহিদুল আলম মিন্টু, ডবলমুরিং থানা ছাত্রলীগ’র সাবেক সভাপতি মোস্তফা কামাল টিপু, সিটি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ইকবাল হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা নেছার মিয়া আজিজ, চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগ’র সদস্য মো. আক্তার হোসেন, মো. আমিন, ৪০নং ওয়ার্ড যুবলীগ’র সভাপতি নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মো. সালাহউদ্দিন, যুবলীগ নেতা সালাহউদ্দিন বাবর ও নুর উদ্দিন মারুফ। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা মো. ফরিদুল আলম কন্ট্রাক্টর, ৩৬নং ওয়ার্ড ইউনিট আওয়ামীলীগ আব্দুল মান্নান চৌধুরী, ২৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সহ-সভাপতি রাশেদ জোবায়েরী, মহানগর ছাত্রলীগ’র সহ-সম্পাদক মো. আরিফ, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মন্নান, যুবলীগ নেতা মো. মুসলিম উদ্দিন রাহাত, আব্দুল জব্বার জনি, মো. মিজান, মো. জুয়েল, মো. আকবর, মো. টিপু। ৪০নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি মো. আলী, প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা ওমর ফারুক, ৩৮নং ওয়ার্ড ইউনিট সভাপতি জনাব আব্দুস শুক্কুর, ইমতিয়াজ মেম্বার ও সাধারণ সম্পাদক মো. ফারুক, সাধারণ সম্পাদক মো. রিফাত আলম, ৩৮নং ওয়ার্ড যুবলীগ’র সাধারণ সম্পাদক মো. আক্তারুজ্জামান, যুবলীগ নেতা মো. রানাসহ চট্টগ্রাম মহানগর ও চট্টগ্রাম-১১ আসনের বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও এর সহযোগী অঙ্গ সংগঠনসমূহের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
ইডিইউ
১৯৭১ সালের সাত মার্চ ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দি উদ্যান) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ভাষণের দিনটি সশ্রদ্ধচিত্তে পালন করেছে ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটি (ইডিইউ)। ৭ মার্চ রবিবার সকাল ১০টায় ইডিইউ শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন উপাচার্য অধ্যাপক মু. সিকান্দার খান। তিনি বলেন, সেদিন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কণ্ঠে অধিকারবঞ্চিত বাঙালির আশা-আকাক্সক্ষা ও স্বপ্নের উচ্চারণ শুনেছিলো বিশ্ববাসী। মাত্র ১৯ মিনিটের ওই ভাষণে তিনি শোষিত-বঞ্চিত-নিপিড়িত বাঙালির প্রাণের দাবি এবং সামাজিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও অর্থনৈতিক মুক্তির রূপরেখা তুলে ধরেন। আমাদের জাতীয় জীবনে ৭ মার্চের গুরুত্ব অপরিসীম। ২৩ বছরের পাকিস্তানি শোষণ-নিপীড়ন-নিষ্পেষণের জিঞ্জির ভাঙতে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের কালজয়ী ভাষণ উজ্জীবিত করেছিল বাঙালিদের।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন স্কুল অব বিজনেসের অ্যাসোসিয়েট ডিন ড. মু. রকিবুল কবির, রেজিস্ট্রার সজল কান্তি বড়–য়া, স্কুল অব ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের অ্যাসোসিয়েট ডিন ড. মু. নাজিম উদ্দিন, স্কুল অব লিবারেল আর্টসের অ্যাসোসিয়েট ডিন শহিদুল ইসলাম চৌধুরী প্রমুখ।
ইউএসটিসি
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (ইউএসটিসি), ইনস্টিটিউট অব অ্যাপ্লায়েড হেলথ সায়েন্সেস (আইএএইচএস), বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল হাসপাতাল (বিবিএমএইচ), আনোয়ারা নূর নার্সিং ইনস্টিটিউট (এএনএনআই) ও আনোয়ারা নূর নার্সিং কলেজ (এএনএনসি) এর যৌথ উদ্যোগে বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধু কর্ণারে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে আলোচনা সভা ও র‌্যালির আয়োজন করা হয়। সভায় উপাচার্য, উপ উপাচার্য, অধ্যক্ষ-আইএএইচএস, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, ডীন, রেজিস্ট্রার, পরিচালক(বিবিএমএইচ), চেয়ারম্যান/বিভাগীয় প্রধান (ইউএসটিসি এবং আইএএইচএস), অধ্যক্ষ (এএনএনআই ও এএনএনসি), সকল শিক্ষক, চিকিৎসক, ইন্টার্নী ডাক্তার ও ছাত্র-ছাত্রীরা উপস্থিত ছিলেন।
সিআইইউ
বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ আগামি দিনের সুন্দর বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয় বলে মন্তব্য করেছেন চিটাগং ইন্ডিপন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির (সিআইইউর) উপাচার্য ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী। গতকাল সকালে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন উপাচার্য ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী। দিবসটি পালন উপলক্ষে নগরের জামালখান ক্যাম্পাসে সিআইইউ কর্তৃপক্ষ হাতে নিয়েছিল নানান কর্মসূচি। সিআইইউর ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আনজুমান বানু লিমার Í সঞ্চালনে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটির আহŸায়ক অধ্যাপক কাজী মোস্তাইন বিল্লাহ, বিজনেস স্কুলের ডিন ড. নাঈম আবদুল্লাহ, অধ্যাপক নুরুল আবসার, স্কুল অব ল’র উপদেষ্টা অধ্যাপক মো. জাকির হোসেন, স্কুল অব লিবারেল আর্টস অ্যান্ড সোশ্যাল সায়েন্সেস এর প্রভাষক নসিহ উল ওয়াদুদ আলম, জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব কুমার দোয়েল দে প্রমুখ।
সাগরিকা শিল্পাঞ্চলে র‌্যালি
ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে নগরীর উত্তর কাট্টলী যুব কর্মস্থান বাস্তবায়ন কমিটির উদ্যোগে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে উত্তর কাট্টলীর বেকার যুবকদের সাগরিকা শিল্পাঞ্চলের বিভিন্ন মিল কারখানায় নিয়োগদানের দাবিতে জনসমাবেশ ও র‌্যালি ৭ মার্চ অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালিতে নেতৃত্ব দেন ১০নং উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ড কাউন্সিলর ড. নিছার উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু। র‌্যালিটি সাগরিকা সী মার্কের সামনে থেকে শুরু হয়ে শিল্পাঞ্চল এলাকা প্রদক্ষিণ করে বিটেক মোড়ে এসে শেষ হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন জহির উদ্দিন বাবর, মোহাম্মদ ইকবাল চৌধুরী, হাবিবুর রহমান, আবুল কালাম আবু, তছলিমা নূর জাহান রুবি, মো. কামাল উদ্দিন, মো. আবু সুফিয়ান, আসিফুল ইসলাম, মো. হারুনুর রশীদ, লায়ন গিয়াস উদ্দিন, মো. জসিম উদ্দিন, জানে আলম জনি, হায়দার আলী, রোকন উদ্দিন চৌধুরী, আবুল মোমিন, চিম্ময় দত্ত, চন্দন দত্ত, মীর কাশেম দুলাল, সাইদুর রহমান প্রমুখ।
মহানগর যুবলীগ
চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালিত হয়েছে। রবিবার এ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন আব্দুল মান্নান ফেরদৌস। বক্তব্য রাখেন চসিক ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব, সুমন দেবনাথ, জাবেদুল আলম সুমন, সাখাওয়াত হোসেন সাকু, খোরশেদ আলম রহমান, নঈম উদ্দিন খান, তানভীর আহমেদ রিংকু, শহীদুর রহমান শহীদ, তাজউদ্দীন রিজভী, জসিম উদ্দিন মিঠুন, শাহজাদা মাসুদ আকবরী, ইসতেহার উদ্দিন পারভেজ, সাহেদ হোসেন টিটু, মো. কামরুজ্জামান, সুমন চৌধুরী, আবু সুফিয়ান, আতিকুর রহমান, জাহাঙ্গীর আলম, হেলাল উদ্দিন আহমেদ, ফরমান উল্লাহ অপু, মামুনুর রশীদ, অ্যাড. টিপু শীল জয়দেব, ডা. নাহিদ ইমতিয়াজ, মনসুর আলী, মোস্তফা আমির, মো. সাহেদ, রুবেল, মো. জাবের, শহীদুল ইসলাম মিন্টু, আবু তাহের, মাকসুদুর রহমান মাসুদ প্রমুখ। আলোচনা সভার পূর্বে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য করেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী যুবলীগের নেতৃবৃন্দ।
বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতা স্মৃতি পরিষদ
বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতা স্মৃতি পরিষদের আয়োজনে ৭ মার্চ সকালে নগরীর প্রিয়া কমিউনিটি সেন্টারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কালোত্তীর্ণ ৭ মার্চের ভাষণ দিবস তথা জাতীয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ‘একটি ভাষণ একটি দেশ’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুর রহিম। চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয় পালি বিভাগের প্রফেসর ড. জিনবোধি ভিক্ষু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী, যুবলীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মাহমুদুল হক, ¯েøাগান সম্পাদক মোহাম্মদ জহির, ব্যবসায়ী নেতা হাজী মোহাম্মদ সাহাবউদ্দিন, সহ-সভাপতি ডা. মো. জামাল উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লায়ন এম এ নেওয়াজ, সাংগঠনিক সম্পাদক কবি আসিফ ইকবাল, শহিদুল ইসলাম সুমন, প্রচার সম্পাদক বোরহান উদ্দিন গিফারী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
এনএমএমজে ডিগ্রি কলেজ
নগরীর বাকলিয়া শহীদ এনএমএমজে ডিগ্রি কলেজে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ যথাযোগ্য মর্যাদায় উদ্যাপিত হয়। জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে শুরু হওয়া আলোচনা সভায় কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল মালেক ঐতিহাসিক ৭ মার্চ এর তাৎপর্য তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন। ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক আবদুল্লাহ ইবনে মাসুদ এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক মো. রবিউল হাছান চৌধুরী এবং অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক নাসরিন আকতার। উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক নুরুল আলম রাজু, অধ্যাপক খাদিজা বেগম, অধ্যাপক আবদুল কাইয়ুম, অধ্যাপক খোন্দকার ছাদেক মাহমুদ, অধ্যাপক সৈয়দ শাহাদাত হোসাইন, অধ্যাপক শাহীনুর বেগম, অধ্যাপক সায়মন নাহার চৌধুরী, অধ্যাপক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দীন, অধ্যাপক বিশ্বকর শর্মা ভাষ্কর, অধ্যাপক মনিকা ধর, অধ্যাপক মো. আলী, অধ্যাপক ফারহানা জান্নাত চৌধুরী, অধ্যাপক তাহেরা আক্তার, অধ্যাপক ইসরাক ইরতিফা মাহমুদ, আশীষ দস্তিদার ও প্রভাষক মোহাম্মদ বদরুদ্দোজা প্রমুখ।
কুসুমপুরা প্রাথমিক বিদ্যালয়
ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন উপলক্ষে কুসুমপুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যবৃন্দ, শিক্ষকমÐলী, ছাত্র-ছাত্রীদের পক্ষ থেকে জতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করা হয়। এর পূর্বে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও মাইকে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচার করা হয়। অতপর বিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়ামে বঙ্গবন্ধুর উপর রচিত কবিতা আবৃত্তি, অবিকল বঙ্গবন্ধুর ভাষণ বলার উপর ছাত্র ছাত্রীদের মাঝে প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। পরে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের গুরুত্ব ও তাৎপর্য শীর্ষক আলোচনা সভা পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ আবু সুফিয়ান টিপুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি শাহীন আক্তার ডলি, সদস্য মিজানুর রহমান সোহেল, মিশকাত জাহান, শিক্ষকমÐলী ও ছাত্র ছাত্রীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ ও বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মোনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।
মেরন সান স্কুল এন্ড কলেজ
ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন উপলক্ষে মেরন সান স্কুল এন্ড কলেজে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন মেরন সান স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও অধ্যক্ষ, মেরিট বাংলাদেশ স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ড. মোহাম্মদ সানাউল্লাহ্। বক্তব্য রাখেন মেরন সান স্কুল এন্ড কলেজ চকবাজার ক্যাম্পাসের উপাধ্যক্ষ রাজেশ কান্তি পাল, উপাধ্যক্ষ (একাডেমিক) শিহাব ইকবাল, চান্দগাঁও ক্যাম্পাসের উপাধ্যক্ষ শিহাব উদ্দীন, মেরিট বাংলাদেশ স্কুল এন্ড কলেজের উপাধ্যক্ষ (ইনচার্জ) উৎপল পাল, শিক্ষক রাহমত উল্লাহ আজাদ, এইচ.এম ফরহাদ চৌধুরী, দেবাশিস বড়–য়া, শহীদুল ইসলাম, রুম্পা পাল, ওসমান বেনজীর, বৈশাখী বণিক প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন মেরন সান স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক ছরওয়ার উদ্দীন আরবী। অনুষ্ঠানে সকল শিক্ষক-শিক্ষিকা ও কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
কাজেম আলী স্কুল
এন্ড কলেজ
কাজেম আলী স্কুল এন্ড কলেজে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদ্যাপিত হয়। সকাল ৬টা ১১ মিনিটে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে কর্মসূচি শুরু হয়। এ উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৭ মার্চের ভাষণ প্রচার এবং আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ লুৎফুননেসা সিকদার, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এস এম মোকাম্মেল হোসাইন, সহকারী প্রধান শিক্ষক লুৎফুল কবির ভূঁইয়া এবং কলেজ কো-অর্ডিনেটর আকতার হোসেনসহ সকল শিক্ষক-প্রভাষকবৃন্দ। সহকারী শিক্ষক রিদোয়ানুল হক এর কোরান থেকে তেলোয়াত এর মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা ঘটে। আলোচনা পর্বে অংশগ্রহণ করেন কলেজ কো-অর্ডিনেটর আকতার হোসেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ লুৎফুননেসা সিকদার ১৯৭১ সালের ৭ মার্চে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণের তাৎপর্য তুলে ধরেন।
বাঁশখালী মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড
বাঁশখালী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালিত হয়েছে। গতকাল উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তার। প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার (অর্থ) আব্দুর রাজ্জাক। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার অধ্যাপক আবুল হাশেমের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সহকারি কমিশনার (ভূমি) আতিকুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুল গফুর, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মৌলভী নুর হোসেন, আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক শ্যামল কান্তি দাশ। বক্তব্য রাখেন সাধনপুর আওয়ামী লীগ সভাপতি আমান উল্লাহ চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা মনসুর আলী, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা সরোয়ার আলম, মুক্তিযোদ্ধা আজিমুল ইসলাম ভেদু, আহমদ হোসেন, নুরুল কাদের, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান এড. আলমগীর কবির, জহির উদ্দিন মো. বাবর, ওয়াহিদ, আব্দুল মান্নান প্রমুখ।
দেবাশীষ পাল দেবু
ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে নগরীর নিউ মার্কেট এলাকায় বর্ণাঢ্য রালি করা হয়। পরে এক সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য দেবাশীষ পাল দেবু। এতে বক্তব্য রাখেন আনিফুর রহমান লিটু, নুরুন্নবী পারভেজ, রায়হান রেওয়াজ সজীব, মো. লোকমান, ইকবাল হোসেন, জাহিদুল হক মার্শাল, রাশেদ চৌধুরী, জাহিদ হোসেন খোকন, নুরুল ইসলাম রাসেল, মঈনুদ্দিন মঈনু, মো. ইসমাঈল, সাজ্জাদ আলী জুয়েল, কাজী আরিফ, মনিরুল হক মনির, মো. এমরান, মো. সাইম, যুবায়ের হোসেন অভি, ফরহাদ আবদুল্লাহ, সাজিবুল ইসলাম সাজীব, মারুফুল ইসলাম মারুফ, মো. মিজান, আবু নাসের জুয়েল প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি