১১৪০০ কোটি টাকা দেবে জাপান : চুক্তি স্বাক্ষর

36

ঢাকা প্রতিনিধি

দক্ষিণ চট্টগ্রাম আঞ্চলিক উন্নয়ন প্রকল্প এবং ঢাকা মেট্রো লাইন ৫ (উত্তর রুট) কর্মসূচির জন্য জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির (জাইকা) সঙ্গে পৃথক দুটি চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। মঙ্গলবার ঢাকায় জাইকা দুটি প্রকল্পের জন্য মোট ১৬৫.৮৬১ বিলিয়ন ইয়েন (১১ হাজার ৪০০ কোটি টাকা) জাপানি ওডিএ ঋণ দেওয়ার জন্য বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে এ চুক্তি স্বাক্ষর হয়।
বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন এবং জাইকা বাংলাদেশের প্রধান ইউহো হায়াকাওয়া অনলাইনে আনুষ্ঠানিকভাবে এতে স্বাক্ষর করেন। বাংলাদেশে নিয়োজিত জাপানের রাষ্ট্রদূত নাওকি ইতো এ সময় যুক্ত ছিলেন।
দক্ষিণ চট্টগ্রাম আঞ্চলিক উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় রয়েছে কক্সবাজার জেলায় রাস্তা ও সেতু, পানি সরবরাহ, নিষ্কাশন ও বন্যা প্রশমন, কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, ঘূর্ণিঝড়-প্রতিরোধী স্কুল এবং স্বাস্থ্য সুবিধার মতো কয়েকটি অবকাঠামো নির্মাণ করা হবে। এলজিইডি বাস্তবায়িত এ প্রকল্পটি জেলার জীবনমান উন্নয়ন করবে। বিশেষ করে স্থানীয় জনগোষ্ঠী যারা মিয়ানমার থেকে আসা বাস্তুচ্যুত জনগোষ্ঠীর কারণে ক্ষতিগ্রস্ত। এটি মহেশখালী মাতারবাড়ি ইন্ট্রাগ্রেটেড ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট (এমআইডিআই) ইনিশিয়েটিভস বাস্তবায়িত এলাকায় জনসেবার মান শক্তিশালী করবে, যা কি না জাপান ও বাংলাদেশ সরকারের মধ্যে সম্মত ইওএই (বে অব বেঙ্গল ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্রোথ বেল্ট) বাস্তবায়নে সহায়তা করবে।
অপরদিকে ঢাকা এমআরটি লাইন ৫ (উত্তর রুট)-এর জন্য এটি তৃতীয় ঋণ চুক্তি। প্রকল্পটি হবে ঢাকার প্রথম ‘পূর্ব-পশ্চিম’ মেট্রো লাইন, যা রাজধানীর পূর্ব ও পশ্চিম অংশকে সংযুক্ত করবে। এটি হেমায়েতপুর থেকে গাবতলী-মিরপুর-বনানী-গুলশান-২ ও নতুন বাজার হয়ে ভাটারা যাবে। গাবতলী থেকে নতুন বাজার পর্যন্ত অংশটি হবে ভূগর্ভস্থ এবং অন্যান্য অংশে এলিভেটেড রেলপথ থাকবে। এমআরটি লাইন ৫ (উত্তর) সংযুক্ত হবে লাইন ৬ এবং ১-এর সঙ্গে যার অর্থায়ন করছে জাইকা এবং পাশাপাশি লাইন ৫-এর (দক্ষিণ রুট) অর্থায়ন করছে এডিবি। প্রকল্পের এক্সিকিউটিভ এজেন্সি ডিএমটিসিএল বিস্তারিত নকশা সম্পন্ন করেছে এবং ইতোমধ্যেই লাইন ৫ (উত্তর)-এর নির্মাণ প্যাকেজের জন্য দরপত্র আহŸান ও যোগ্যতা যাচাইয়ের কাজ শুরু করেছে।