১০ স্থানে জমি ও বাড়ি আছে রুহেলের

87

চট্টগ্রাম-১ (মিরসরাই) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন মাহবুব উর রহমান রুহেলের। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের এই সন্তানের শিক্ষাগত যোগ্যতা এমবিএ। পেশায় ব্যবসায়ী। ঢাকা, গাজীপুর ও কক্সবাজারের ১০টি স্থানে জমি আছে এই প্রার্থীর। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে জমা দেয়া হলফনামায় তিনি এমন তথ্য উল্লেখ করেছেন।
হলফনামায় মাহবুব উর রহমান উল্লেখ করেন, বাৎসরিক নিজের আয়ের মধ্যে বাড়ি/এপার্টমেন্ট থেকে এক লক্ষ ৭১ হাজার টাকা, নিজের পেশা-ব্যবসা উল্লেখ করলেও ব্যবসায়ী হিসেবে তার বাৎসরিক কোনো আয় নেই। তবে এ খাতে নির্ভরশীলদের আয় ২০ লক্ষ টাকা। শেয়ার সঞ্চয়পত্র ও ব্যাংক আমানত আছে নিজের আয় এক লক্ষ ৪৫ হাজার ২০৫ টাকা। চাকরি থেকে প্রার্থীর নির্ভরশীলদের আয় ১৩ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা। অন্যান্য খাতে নিজের আয় ৯৩ লক্ষ ৯৬ হাজার ৩৩২ টাকা।
স্থাবর সম্পদের মধ্যে নিজ নামে গাজীপুরে ৩০ লক্ষ টাকা দামের ৬৬ শতক কৃষি জমি এবং কক্সবাজারের ঈদগাহ-এ ৮৫ লক্ষ ৮৩ হাজার টাকা দামের সাত একর জমি আছে। অকৃষি জমির মধ্যে টেকনাফের সেন্টমার্টিন মৌজায় চার লক্ষ ৫৯ হাজার ৬০০ টাকা দামের ২৪২ শতক, রাজধানীয় বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ৩৮ লক্ষ ১৪ হাজার ৪৭৩ টাকা মূল্যের ১০ কাঠা জমি, ঢাকার রাজউক পূর্বাচল প্রকল্পে ১৮ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার মূল্যের ১০ কাঠা জমি, গাজীপুরে সাত লক্ষ ১৫ হাজার টাকা মূল্যের ৩৫ শতক ও একই এলাকায় ৩৫ শতক জমির মূল্য ১০ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা। বাণিজ্যিক দালান হিসেবে বসুন্ধরা বানিজ্যিক এলাকায় ২০ লক্ষ টাকা দামের একটি দালান, বাড়ি/এপার্টমেন্ট ২১৩৫ বর্গফুটের ওই ভবনের আর্থিক মূল্য ৪১ লক্ষ ১৩ হাজার টাকা, গুলশান আবাসিকে পাঁচ হাজার ৯০ ফুটের আরো একটি জায়গার আর্থিক মূল্য সাত কোটি ৫০ লক্ষ টাকা।
অস্থাবর সম্পদের মধ্যে নিজ নামে এক কোটি ৪০ লক্ষ ৪০ হাজার ৩৩৩ টাকা, স্ত্রীর নামে ২৭ লক্ষ সাত হাজার ৩০০ টাকা, নির্ভরশীলদের নামে ১৫ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকা, বৈদেশিক মুদ্রা আছে ১৭ হাজার ১৭১ ডলার, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমাকৃত অর্থ ৫১ লক্ষ সাত হাজার ৭৩৯ টাকা, বন্ড, ঋণপত্র, স্টক এক্সচেঞ্জ তালিকাভুক্ত কোম্পানির শেয়ার পাঁচ কোটি ৯১ লক্ষ ৩৬ হাজার ৩৫৫ টাকা, স্ত্রীর নামে তিন কোটি ছয় লক্ষ আট হাজার ৪০০ টাকা, নির্ভরশীলদের নামে ৫০ লক্ষ ৬০ হাজার ১৬০ টাকা। পোস্টাল সেভিংস আছে স্ত্রীর নামে ৪৭ লক্ষ ৪৫ হাজার ৮৪০ টাকা, ১০ লক্ষ টাকা দামের একটি গাড়ি আছে। স্বর্ণ নিজের নামে দুই লক্ষ টাকা, স্ত্রীর নামে চার লক্ষ টাকা, নির্ভরশীলদের নামে ৯ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকার, ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী নিজ নামে তিন লক্ষ, স্ত্রীর নামে একলক্ষ ও নির্ভরশীলদের নামে পাঁচ লক্ষ টাকা, আসবাবপত্র নিজ নাম তিন লক্ষ, স্ত্রীর নামে এক লক্ষ ও নির্ভরশীলদের নামে পাঁচ লক্ষ টাকার আছে।