হিজড়া-বেদে-যৌন কর্মীরাও আসবেন ভোটার তালিকায়

25

পূর্বদেশ অনলাইন
সারা দেশে নতুন ভোটার হালনাগাদ শুরু হয়েছে। এবারের হালনাগাদে হিজড়া-বেদে সম্প্রদায় ও যৌন কর্মীরাও তালিকাভুক্ত হবেন। সাধারণ জনগণের মতো তারাও ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন। শুক্রবার (২০ মে) সকালে সাভার উপজেলা মিলনায়তনে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম-২০২২’র উদ্বোধন হয়। কার্যক্রম উদ্বোধন করে এসব তথ্য জানান প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আওয়াল। নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার জানান, সাধারণ জনগণের পাশাপাশি হিজড়া, বেদে সম্প্রদায় ও যৌন কর্মীদেরও ভোটার তালিকায় আনা হয়েছে। এর আগে হিজড়া সম্প্রদায়ের মানুষ একজন পুরুষ বা মহিলা হিসেবে ভোটার তালিকায় পরিচয় দিয়েছেন। কিন্ত এবার একজন তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তি হিসেবে তারা ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবেন। নির্বাচন কমিশন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সরকার বাংলাদেশের হিজড়া জনগোষ্ঠীকে তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে চিহ্নিত করে স্বীকৃতি প্রদানের প্রেক্ষাপটে ভোটার তালিকায় নতুন অন্তর্ভুক্তি করতে পারবেন। তবে হিজড়া জনগোষ্ঠীকে ভোটার হিসেবে নিবন্ধনের ক্ষেত্রে তাদের শনাক্তকরণের জন্য সমাজসেবা অফিসের প্রত্যয়ন অথবা স্থানীয় জনপ্রতিনিধির প্রত্যয়নের ভিত্তিতে নিবন্ধন করতে হবে। এ বিষয়ে যন্ত্রাযথ দৃষ্টি রাখতে হবে, তারা যেন ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্তির ক্ষেত্রে কোনোভাবেই বঞ্চিত না হন। আরও জানা গেছে, প্রথম ধাপে ১৪০ উপজেলায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমের তথ্য সংগ্রহ করা হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে ছবি তোলা ও ভোটার নিবন্ধনের কার্যক্রম চলবে। প্রায় ৫৬ হাজার তথ্য সংগ্রহকারী আগামী তিন সপ্তাহ বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারদের তথ্য সংগ্রহ করবেন। ২০০৭ সালের ১ জানুয়ারি বা তার আগে যাদের জন্ম তারা এবার নিবন্ধনের সুযোগ পাবেন। অবশিষ্ট উপজেলাগুলোর জ্যেষ্ঠ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা স্থানীয়ভাবে তথ্য সংগ্রহ ও নিবন্ধন কার্যক্রমের সময়সূচি নির্ধারণ করবেন। বয়স ১৮ না হলেও জাতীয় পরিচয়পত্র দেওয়া হবে। যাদের বয়স ১৮ হয়নি, তাদের বয়স ১৮ বছর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভোটার তালিকায় নাম যুক্ত হয়ে যাবে।