স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চালুর দাবিতে সমাবেশ

5

সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটি :
বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটি কর্তৃক সমগ্র বাংলাদেশব্যাপী বিক্ষোভ মিছিলের অংশ হিসেবে ২ মে সকাল সাড়ে ১০ টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব চত্বরে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটির অন্তর্ভূক্ত বিভিন্ন বেসিক ইউনিয়নের উদ্যোগে এক সমাবেশ ও সমাবেশ শেষে এক বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি মো. মুছা’র সভাপতিত্বে ও অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে করোনা মহামারী নিয়ন্ত্রণে গণপরিবহন বন্ধ থাকায় বেকার সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের আর্থিক অনুদান প্রদান, সরকার কর্তৃক প্রদত্ত ওএমএস এর কেজি প্রতি ১০টা দরে চাউল শ্রমিকদের পরিচয়পত্র দেখে বিভিন্ন টার্মিনাল, বাস স্ট্যান্ড, ট্যাক্স স্ট্যান্ড, উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে সরবরাহ করা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ২ আসনে ১ জন যাত্রী পরিবহন করার নিয়মে অবিলম্বে গণপরিবহন চালু করার দাবি জানানো হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন পূর্বাঞ্চল (চট্টগ্রাম-সিলেট বিভাগ) কমিটির সভাপতি মৃণাল চৌধুরী। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটির কার্যকরী সভাপতি রবিউল মাওলা, সাধারণ সম্পাদক অলি আহমদ, আবু বক্কর ছিদ্দিকী, আবদুর রহিম, মো. বিপ্লব, আবুল কাশেম, জাহেদ হোসেন, নজরুল ইসলাম, মো. হাসান, মো. হারুন, মো. সোলায়মান, নুর মোহাম্মদ, জানে আলম, হাসান মোল্লা, সিরাজুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম, মো. ইমরান হোসেন, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।
অটোরিকশা-অটোটেম্পো চালক শ্রমিক ইউনিয়ন :
নগরীর বহদ্দারহাট পুলিশ বক্সের সামনে ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক মো. সোলেমানের সভাপতিত্বে ও অর্থ সম্পাদক মো. জসীম উদ্দিনের সঞ্চালনায় লকডাউনের সময় অটোরিকশা-অটোটেম্পো চালক শ্রমিকদের খাদ্য সামগ্রী প্রদান করুন না হয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমাদেরকে গাড়ি চালানোর অনুমতি ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে অটোরিকশা-অটোটেম্পো চালু করার দাবিতে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. হারুনুর রশীদ। সভায় বক্তারা বলেন, বর্তমান বিশ্ব কোভিড-১৯ মহামারীর দ্বিতীয় ধাপে আক্রান্ত। এর সাথে পাল্লা দিয়ে বাংলাদেশও এ মহামারীতে আক্রান্ত। এমতাবস্থায় সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, মানুষের জীবন রক্ষার তাগিদে গত ১৪ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া লকডাউন অদ্যাবধি চলমান থাকায় অটোরিকশা-অটোটেম্পো চালক শ্রমিকদের জীবিকা বন্ধ হওয়াতে খাদ্য অভাবে জীবনমান রক্ষায় দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে। এতে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম নেতা মো. হাসান মোল্লা, মো. শফিকুল ইসলাম, মো. আবুল কাশেম, মো. আবুল হোসেন, মো. ইউসুফ, মো. সাহাব উদ্দিন, মো. রুবেল, মো. সাজ্জাদ ও মো. আবদুল কাদের প্রমুখ।