সেই যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

12

বোয়ালখালী প্রতিনিধি

বোয়ালখালী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনের দিন শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউনিয়নের জৈষ্ঠ্যপুরা রমনী মোহন উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের বাইরে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) ব্যালট ইউনিট নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় সেই যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন নির্বাচন কমিশন। কেন্দ্র থেকে ইভিএমের ব্যালট ইউনিট চুরির অভিযোগ যুবলীগ নেতা নির্মলেন্দু দে সুমনের বিরুদ্ধে বোয়ালখালী থানায় মামলা দায়ের করেন কেন্দ্রের দায়িত্ব পালনকারী প্রিজাইডিং অফিসার প্রভাষক সজল দাশ। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে তিনি পেনাল কোডের ৩৮০ ও ৪১১ ধারায় মামলাটি দায়ের করেন। নির্মলেন্দু শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তিনি ওই এলাকার ৯নং ওয়ার্ডের মৃত গৌরাঙ্গ দে এর ছেলে।
মামলার এজাহারে বলা হয়, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউনিয়নের জৈষ্ঠ্যপুরা রমনীমোহন উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রের ৪নং বুথের ইভিএম পরিবর্তন করে পুনরায় ভোটগ্রহণ কার্যক্রম আরম্ভ করা হয় এবং নষ্ট ইভিএমসহ একটি ব্যালট ইউনিট ৪নং বুথের পেছনে রাখা হয়। ব্যালট ইউনিটটি সকাল সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টার মধ্যে চুরি হয়ে যায়। এরপর তাৎক্ষণিক সন্ধানে তা উদ্ধার করা হয়।
বোয়ালখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুর রাজ্জাক বলেন, প্রিজাইডিং অফিসারের দায়েরকৃত মামলাটি রুজু করা হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।
উল্লেখ্য, গত ১৬ মার্চ বোয়ালখালী উপজেলা পরিষদ উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণকালীন সময়ে শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউনিয়নের জৈষ্ঠ্যপুরা রমনীমোহন উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রের ৪নং বুথে ব্যালট ইউনিট কেন্দ্রের বাইরে নিয়ে যান ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা নির্মলেন্দু দে। এ ঘটনায় পুলিশ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি রতন চৌধুরীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।