সুদানে সামরিক অভ্যুত্থানের নিন্দা যুক্তরাষ্ট্রের

3

 

সুদানে সামরিক বাহিনীর ক্ষমতা দখল ও দেশটির বেসামরিক নেতাদের গ্রেপ্তারের নিন্দা জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন। বৃহস্পতিবার সুদানের ক্ষমতাচ্যুত অন্তর্বর্তী সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মারিয়াম সাদিক আল-মাহদির সঙ্গে ফোনে কথা বলে তিনি ওয়াশিংটনের অবস্থান জানান বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। অভ্যুত্থানের পর সামরিক নেতা জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহান সার্বভৌম কাউন্সিল এবং অন্তর্বর্তীকালীন সরকার ভেঙে দিয়ে দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেন। বুরহান সুদানের সামরিক ও বেসামরিক নেতাদের নিয়ে গঠিত সার্বভৌম কাউন্সিলের প্রধান ছিলেন। সেনাবাহিনীর ক্ষমতা দখলের প্রতিবাদে সোমবার থেকেই আফ্রিকার দেশটিতে হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে এসে বিক্ষোভ দেখিয়েছে, তারা বেসামরিক নেতৃত্বের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের দাবি জানিয়েছে।
বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে একাধিক প্রাণও ঝরেছে। ব্লিনকেন টুইটারে বলেছেন, মারিয়াম সাদিক আল-মাহদির সঙ্গে ফোনালাপে তারা দুজন সুদানে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা কায়েমের লক্ষ্যে বেসামরিক নেতৃত্বাধীন অন্তর্বর্তী সরকার ফিরিয়ে আনতে দেশটির জনগণের যে চাওয়া তাতে যুক্তরাষ্ট্র কী ধরনের সহযোগিতা করতে পারে তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। দীর্ঘদিনের প্রেসিডেন্ট ওমর আল বশিরকে ২০১৯ সালে সরিয়ে দেওয়ার পর সামরিক বাহিনী ও বেসামরিক গোষ্ঠীগুলোর নড়বড়ে এক ক্ষমতা ভাগাভাগির চুক্তির মধ্য দিয়ে গত দুই বছর ধরে পরিচালিত হয়ে আসছিল পূর্ব আফ্রিকার দেশটি।