সীতাকুন্ড প্রেসক্লাব পরিদর্শনে বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব

9

 

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও সীতাকুন্ড উপজেলার সাবেক সহকারি কমিশনার (ভূমি) মাহমুদ হাসান গত শুক্রবার সীতাকুন্ড প্রেসক্লাবের নবনির্মিত ভবন পরিদর্শনে আসেন। এ সময় তিনি বলেন, সাংবাদিকরা হচ্ছে সমাজের দর্পণ, একটি দেশের আত্নসামাজিক উন্নয়নে সাংবাদিকরা বড় ভূমিকা পালন করেন। একজন সাংবাদিকের সব চেয়ে বড় নৈতিকতা হচ্ছে সত্যনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করা। অতিতের কথা স্বরণ করিয়ে তিনি বলেন প্রেসক্লাবে এসে আজ আমার মনটা ভরে গেলো। সীতাকুন্ডের সাংবাদিকরা দীর্ঘ বহুবছর পর নিজেদের ভবন পেয়েছে। দেশের বিভিন্ন উপজেলায় সাংবাদিকদের মধ্যে গ্রূপিং এবং একের অধিক প্রেসক্লাব থাকলেও সীতাকুন্ড সাংবাদিকরা সবাই একই ছাদের নিচে অবস্থান করছেন। এটি একটি প্রশংসনীয় উদ্যেগ। সীতাকুন্ড প্রেস ক্লাবের সভাপতি সৌমিত্র চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক লিটন কুমার চৌধুরীর সঞ্চালনায় সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন বিভাগীয় উপক‚লীয় বন কর্মকর্তা এসএ গোলামুর রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাশেদুল ইসলাম, সীতাকুন্ড সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের সভাপতি এম হেদায়েত, সাবেক সভাপতি এম. সেকান্দর হোসাইন, প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি জহিরুল ইসলাম, আ.ফ.ম কাজী বোরহান, সীতাকুন্ড পৌরসদর আলম সফি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর ভূঁইয়া, সীতাকুন্ড পৌরসদর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন প্রমুখ। মাহমুদ হাসান প্রেসক্লাবে আসলে সাংবাদিকরা তাকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন এবং অতিরিক্ত সচিব মাহমুদ হাসানকে প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে একটি সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন।