সিদ্ধান্তহীনতায় কিশোর দলের পাকিস্তান সফর

11

গত ১৬ অক্টোবর চার সদস্যের প্রতিনিধি দল নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করতে পাকিস্তানে গিয়েছেন। তারা এখনও না ফেরায় রিপোর্ট নেই ক্রিকেট বোর্ড বিসিবির হাতে। এরপরও তারা নিশ্চিত করেছে অনূর্ধ্ব-১৬ দলের পাকিস্তান সফর। নিরাপত্তা ইস্যু পাশ কাটিয়ে দেশের ক্রিকেট সংস্থার এমন সিদ্ধান্ত বিস্ময় তৈরী করেছে। অবশ্য তাদের দাবি পাকিস্তানের ফ্লাইট ধরার আগে নিরাপত্তা প্রতিনিধি দল ঢাকায় পৌঁছাবে এবং ইতিবাচক রিপোর্টই দেবে!
পাকিস্তান সফরে বাংলাদেশের যুব দল দুটি চার দিনের ম্যাচ ও তিনটি ওয়ানডে খেলবে। এরই মধ্যে দলের ক্রিকেটার থেকে শুরু করে কর্মকর্তারা সবাই প্রস্তুত। আজ সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার ফ্লাইটে পাকিস্তানের উদ্দেশে রওনা হবে বাংলাদেশ দল। সবকিছু গুছিয়ে রাখলেও নিরাপত্তা প্রতিনিধি দলের সবুজ সঙ্কেতের অপেক্ষায় আছে পুরো দল।
গেম ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার মোহাম্মদ কায়সার জানালেন, ‘সোমবার রাতে বাংলাদেশের পাকিস্তান ফ্লাইট। তবে আমরা নিরাপত্তা ছাড়পত্রের জন্য অপেক্ষা করছি। আমাদের সবই কিন্তু প্রস্তুত। ওখান থেকে (নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল) হ্যাঁ বললে যাবো। না হলে যাওয়া হবে না।’
দলটির কোচ মিজানুর রহমান বাবুল অবশ্য সফরে যাওয়া একপ্রকার নিশ্চিতই করলেন, ‘আমি যতদূর শুনেছি, এই ট্যুর নিশ্চিত। আনুষ্ঠানিকভাবে হয়তো ঘোষণা আসেনি। আর যাওয়া হোক বা না হোক আমাদের মাথায় আছে যে, আমরা যাচ্ছি।’
বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী জানালেন, এই সফরের সব প্রস্তুতি সেরে রেখেছে দল। এখন শুধু ছাড়পত্রের অপেক্ষা, ‘একটা পর্যবেক্ষক দল পাকিস্তানে আছে। তাদের প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করেই বাংলাদেশ দল যাবে। আমরা আমাদের প্রস্তুতি নিয়ে রাখছি। তাদের প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করেই আমরা সিদ্ধান্ত নিবো।’
এই যুব দলের পর পাকিস্তান সফরে যাবে মেয়েদের দল- ২৩ অক্টোবর। এরপর আগামী ফেব্রুয়ারিতে সাকিব-তামিমদের পাকিস্তানে যাওয়ার কথা। সব কিছুই নির্ভর করছে নিরাপত্তা প্রতিনিধি দলের সবুজ সঙ্কেতের ওপর।