সিআরবি রক্ষা চট্টগ্রামবাসীর প্রাণের দাবি : ড. অনুপম

24

নিজস্ব প্রতিবেদক

খ্যাতিমান সমাজবিজ্ঞানী, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ড. অনুপম সেন বলেছেন, আমরা প্রতিজ্ঞা করছি এখানে হাসপাতাল হতে দেব না। প্রয়োজনে যা কিছু করার আমরা সব করবো। সিআরবি নগরবাসীর নিশ্বাসের জায়গা। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় সিআরবিতে ‘নাগরিক সমাজ চট্টগ্রাম’ আয়োজিত প্রদীপ প্রজ্জ্বলন কর্মসূচিতে এ প্রতিজ্ঞার কথা জানান তিনি।
ড. অনুপম সেন বলেন, সিআরবি ধ্বংস করতে কখনোই দেব না। আমরা সবাই মিলে প্রতিহত করবো। প্রধানমন্ত্রী প্রকৃতি সচেতন এবং তিনি মানুষের কথা সব সময় ভাবেন। সুতরাং আমি জানি, তাঁকে ভুল বোঝানো হয়েছে। তাঁকে যথার্থ বার্তা দিতে পারলে তিনি নিশ্চয় আমাদের কথা শুনবেন। যেসব রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী যারা প্রধানমন্ত্রীকে ভুল বুঝিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হবো। সিআরবি রক্ষা চট্টগ্রামবাসীর প্রাণের দাবি।
এদিকে গতকাল বিকাল ৪টার আগেই সিআরবির আশপাশের এলাকা লোকে লোকারণ্য হয়ে ওঠে।সকলের মুখেই একই দাবি ‘সিআরবিতে হাসপাতাল নয়’। বিভিন্ন সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন হাসপাতালের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে সিআরবিতে কর্মসূচি পালন করতে থাকে। এরমধ্যে নানা নাটক ও প্রদর্শনীর মধ্যদিয়ে হাসপাতালের বিরুদ্ধে অবস্থান তুলে ধরেন সেখানে আসা সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতারা।
বক্তব্য, গান, কবিতা আবৃত্তিতে পুরো সিআরবি উজ্জীবিত হয়ে ওঠে। বাদ্যযন্ত্রের তালেও সিআরবি যেন মুখরিত। সকলের মুখেই একই সুর সিআরবিতে হাসপাতাল চাই না। হাসপাতালের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামবাসী যেন একাট্টা। হাসপাতালের পক্ষে যারাই অবস্থান নিয়েছেন তাদেরকে একহাত নিয়েছেন বক্তারা। প্রধানমন্ত্রীর সুনির্দিষ্ট বক্তব্যের মধ্যদিয়ে এ হাসপাতাল প্রকল্প বাতিলের দাবি জানিয়েছেন সবাই। সন্ধ্যার পরই প্রদীপ প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠানে সবার হাতেই ওঠে মোমবাতি। মোমবাতি জ্বালিয়ে অভিনব প্রতিবাদ করেন চট্টগ্রামের সাংস্কৃতিক কর্মীরা।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, হিন্দু, বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রানা দাশগুপ্ত, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক ড. গাজী সালাহউদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা গবেষণা কেন্দ্রের চেয়ারম্যান ডা. মাহফুজুর রহমান, পেশাজীবী নেতা ডা. একিউএম সিরাজুল ইসলাম, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফ্ফর আহমদ, পরিবেশবিদ ইদ্রিস আলী, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ প্রমুখ। এর আগে নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজনের পক্ষ থেকেও হাসপাতাল বিরোধী কর্মসূচি পালন করা হয়।