সবজির দাম কেজিতে ২০-২৫ টাকা কমেছে

60

নগরীর বিভিন্ন কাঁচা বাজারে সবজির দাম কেজিতে প্রায় ২০ থেকে ২৫ টাকা কমেছে। গতকাল শুক্রবার নগরীর ষোলশহর দুই নম্বর গেট কর্ণফুলী কমপ্লেক্স, বহদ্দারহাট এবং চকবাজার কাঁচা বাজার ঘুরে এ তথ্য জানা গেছে।
তবে ক্রেতাদের অভিযোগ, যে দামে বিক্রি হচ্ছে, তা মধ্যবিত্তের নাগালের বাইরে। সবজির দামের পাশাপাশি মসলার দামও কমা উচিৎ। কৃষি বিপণন অধিদপ্তর বলছেন, পেঁয়াজের বাজারের সাথে সবজিরও দাম এখন তুলনামূলক কমছে। সামনে আরও কমবে।
সবজি ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, খুচরা বাজারে টমেটো বিক্রি হচ্ছে প্রতিকেজি ৮০ টাকা, গাজর ৬০ টাকা, শসা ৭০ টাকা, ফুলকপি ৬০ টাকা, বাঁধাকপি ৪০ টাকা, বরবটি ৬০ টাকা, মুলা ৩০ টাকা, বেগুন ৫০ থেকে ৬০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৪০ টাকা, লাউ ৩০ টাকা, শিম ৬০ টাকা, আলু ৫০ টাকা, শালগম ৫০ টাকা, পেঁপে ৩০ টাকা, কাকরল ৬০ টাকা, খিরা ৫০ টাকা, মরিচ ৪০ টাকা, মুখিকচু ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
চকবাজারের বিক্রেতা জাবের হোসেন জানান, প্রত্যেকটি সবজির দাম ২০ থেকে ২৫ টাকা কেজিতে কমেছে। সরবরাহ বাড়লে আরও কমবে। সবজি বিক্রেতা রাজু খান জানান, প্রায় সব ধরনের সবজির দাম কমেছে। সরবরাহ বাড়লে আরও কমবে।
সবজি ক্রেতা মোহাম্মদ রাজীব জানান, বাজারে শীতকালীন সবজি আসার কারণে দাম একটু কমছে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে আরও কমার আশা রাখি। বর্তমানে যে দামে আছে, তা আমাদের মত মধ্যবিত্তের নাগালের বাইরে। সবজির দামের পাশাপাশি মসলার দামও কমা উচিৎ বলে মনে করি।
গৃহিণী নাসিমা বেগম বলেন, প্রতি কেজি সবজির দাম প্রায় ২০ টাকা করে কমছে। আবার আগে ফুলকপি কিনতে হতো প্রতিকেজি ১২০ টাকা করে, এখন তা ৬০ টাকায় কিনতে পারছি।
অন্যদিকে প্রতি ডজন ব্রয়লার মুরগির ডিম বিক্রি হচ্ছে ৯৫ টাকায়। আর সোনালি মুরগি ও হাঁসের ডিম ১৫০ টাকা এবং দেশি মুরগির ডিম ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
ডিম দোকানি ছালেহ আহমদ বলেন, ডিমের দাম একটু কমেছে।
মাছ বাজার ঘুরে দেখা যায়, মাছের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। বাজারে বড় বড় সাইজের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৮০০ থেকে ১০০০ টাকায়। অন্যদিকে লইট্টা ১৫০ থেকে ১৮০ টাকা, চিংড়ি আকারভেদে ৬০০ থেকে ১২০০ টাকায়, দেশি রুই ২০ টাকা কমে ২৮০ টাকা, শিং ৮০০, রূপচাঁদা ৬০০ টাকা, লাল কোরাল ৫৮০ টাকা, রুই ২০০ থেকে ২৫০ টাকা, কাতাল ৩০০ টাকা, কৈ ৩০০ টাকা, তেলাপিয়া ৪০ টাকা কমে ১২০ টাকা এবং পোয়া ৩০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
মাংস বিক্রেতা দিদার হোসেন জানান, বাজারে প্রতি কেজি গরুর মাংস ৭০০ টাকা (রানের), হাঁড়সহ ৬০০ টাকা। অন্যদিকে খাসির মাংসও ৭৫০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। মাংসের দাম আগের মতই রয়েছে।
ব্রয়লার মুরগি কেজি প্রতি বিক্রি হচ্ছে ১১০ থেকে ১১৫ টাকায়। দেশি মুরগি বাজার ভেদে প্রতি কেজি ৩৮০ থেকে ৪২০ টাকা আর সোনালী মুরগি ২৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
এ ব্যাপারে চট্টগ্রাম কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের কর্মকর্তা মো. সেলিম মিয়া পূর্বদেশকে বলেন, শীতকালীন সবজির দাম এখন কমতে শুরু করেছে। যার মধ্যে বাঁধাকপি, ফুলকপি এবং নতুন টমেটো ও আলু রয়েছে। প্রতি সপ্তাহেই অল্প অল্প করে দাম কমছে।
তিনি আরও বলেন, আস্তে আস্তে সবজি হাতের নাগালে চলে আসবে। পেঁয়াজের দামও অনেকটাই কমেছে। চীনের পেঁয়াজ ৮০ থেকে ৯০ টাকা কেজি প্রতি বিক্রি হচ্ছে। ইতোমধ্যে ঢাকাসহ বিভিন্ন জায়গায় আমাদের দেশীয় পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হয়েছে, তবে একটু দাম বেশি। কিছুদিনের মধ্যে আরও কমে আসবে।