সংক্ষুব্ধ প্রার্থীরা যেতে পারবেন ট্রাইব্যুনালে

11

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) নির্বাচনে সংক্ষুব্ধ প্রার্থীরা যাতে মামলা করতে পারেন সেজন্য ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়েছে। গত ১৮ ফেব্রূয়ারি নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের উপ-সচিব (আইন) আফরোজা শিউলী স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। তবে গতকালই এ প্রজ্ঞাপনটি নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর, সাধারণ আসনের কাউন্সিলর পদে নির্বাচনে বিরোধ সংক্রান্ত দরখাস্ত/আপিল গ্রহণ, শুনানি ও নিষ্পত্তির লক্ষ্যে চট্টগ্রামের প্রথম আদালতের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজকে নিয়ে নির্বাচনী ট্রাইব্যুনাল এবং চট্টগ্রামের প্রথম আদালতের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এবং চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে নিয়ে নির্বাচনী আপিল ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়েছে।
নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, চসিক নির্বাচনে ফলাফল বাতিল, পুনঃ নির্বাচন, ভোট গণণা নিয়ে আপত্তি থাকলে এই ট্রাইব্যুনালে মামলা করতে পারবে। যা নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণার ৩০ দিনের মধ্যে করতে হবে। তবে গত ৩১ জানুয়ারি নির্বাচনী ফলাফল গেজেট ঘোষণা করা হয়। ইতোমধ্যে নির্ধারিত সময়ের ১৮দিন পর এই ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হলো। ট্রাইব্যুনালে জমা পড়া আবেদন ১৮০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে হবে। প্রার্থী এ রায়ে সন্তুষ্ট না হলে ট্রাইব্যুনালে রায়ের ৩০ দিনের মধ্যে আপিল ট্রাইব্যুনালে আপিল করতে পারবেন। এর আগে গত ২৭ জানুয়ারি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।