শোক দিবসে জাতির পিতাকে স্মরণ

28

আইইবি, চট্টগ্রাম কেন্দ্র


ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি), চট্টগ্রাম কেন্দ্রের উদ্যোগে ১৫ আগস্ট সকালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৭তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে অর্ধনমিত জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, খতমে কোরান, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল, চিত্রাংকন ও রচনা প্রতিযোগিতা, বঙ্গবন্ধুর উপর প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন, বঙ্গবন্ধুর উপর কবিতা আবৃত্তি, আলোচনা সভা ও এতিমখানায় খাদ্য বিতরণ করা হয়। কেন্দ্রের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন। কেন্দ্রের সম্মানী সম্পাদক প্রকৌশলী এস এম শহিদুল আলম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রিমিয়ার বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. অনুপম সেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রের তিনজন প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মোহাম্মদ শাহজাহান, প্রকৌশলী মোহাম্মদ হারুন ও প্রকৌশলী সাদেক মোহাম্মদ চৌধুরী। কেন্দ্রের ভাইস-চেয়ারম্যান (একা. এন্ড এইচআরডি) প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম মানিক ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন প্রাক্তন ভাইস-চেয়ারম্যান প্রকৌশলী এম এ রশীদ, সিনিয়র প্রকৌশলী খোরশেদ উদ্দিন বাদল, প্রকৌশলী মো. আবুল হাশেম, প্রকৌশলী মোহাম্মদ শাহজাহান ও প্রকৌশলী প্রদীপ বড়–য়া। কবিতা আবৃত্তিতে অংশগ্রহণ করেন প্রকৌশলী সাদেক মোহাম্মদ চৌধুরী, প্রকৌশলী প্রদীপ বড়–য়া, প্রকৌশলী বিধান চন্দ্র দাস, প্রকৌশলী শাপলা দেওয়ানজি ও প্রকৌশলী পলাশ কান্তি দে। সবশেষে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও রচনা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে বিপুল সংখ্যক প্রকৌশলী উপস্থিত ছিলেন।

জাতিতাত্ত্বিক জাদুঘর

নগরীর আগ্রাবাদে অবস্থিত জাতিতাত্তি¡ক জাদুঘরের উদ্যোগে জাতির পিতার ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকীতে জাতীয় শোক দিবসে দিনের প্রথম প্রহরে পতাকা উত্তোলন ও তা অর্ধনমিত রাখা হয়। জাতিতাত্তি¡ক জাদুঘরের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী চট্টগ্রাম ও জেলা প্রশাসন চট্টগ্রামের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত শোক র‌্যালি শেষে শিল্পকলা একাডেমীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এরপর শিল্পকলা একাডেমীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনের ওপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার মো. আশরাফ উদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার কৃষ্ণপদ রায়, ডিআইজি মো. আনোয়ার হোসেন, পুলিশ সুপার রাশিদুল হক, মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর আহমেদ, মুক্তিযোদ্ধা সারওয়ার কামাল প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান।


এছাড়াও তৃতীয় পর্বে জাতিতাত্তি¡ক জাদুঘরের উপ-পরিচালক কাম কীপার কার্যালয়ের নিজস্ব উদ্যোগে বাদ জোহর আগ্রাবাদ মাদ্রাসার বিভিন্ন শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের নিয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত মওলানাসহ আলোচনা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের প্রধান মো. আবু সাঈদ, বিশেষ অতিথি ছিলেন মাওলানা ইশফাক। সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম জাতিতাত্তি¡ক জাদুঘরের উপ-পরিচালক কাম কীপার ড. মো. আতাউর রহমান। মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরাও আলোচনায় অংশগ্রহণ করে। তৃতীয় পর্বের অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন জাদুঘরের সহকারী কাস্টডিয়ান আবু বকর সিদ্দিক। ৪র্থ পর্বে আগ্রাবাদ এলাকায় বৃদ্ধ, প্রতিবন্ধী, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, দরিদ্র ইত্যাদি প্রায় একশ মানুষের মধ্যে খাবার বিতরণ করা হয়। পঞ্চম পর্বে বিকেলে জাতিতাত্তি¡ক জাদুঘরের উপ-পরিচালক কাম কীপার অফিসের সামনে ড. মো. আতাউর রহমান সহ অফিসের সহকর্মীরা ভেষজ ও ফুল গাছের চারা রোপণ করেন।

এম এ মোতালেব সিআইপি

সাতকানিয়া উপজেলা প্রশাসনের জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ মোতালেব সিআইপি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে দৈহিকভাবে হত্যা করা হলেও তাঁর মৃত্যু নেই। তিনি চিরঞ্জীব। কেননা একটি জাতিরাষ্ট্রের স্বপ্নদ্রষ্টা এবং স্থপতি তিনিই। যতদিন এ রাষ্ট্র থাকবে, ততদিন অমর তিনি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাতেমা তুজ জোহরার সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য দেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সাতকানিয়া সার্কেল) শিবলী নোমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মং চিংনু মারমা, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল হান্নান তারেক, পৌরসভা মেয়র মোহাম্মদ জোবায়ের, ভাইস চেয়ারম্যান সালাহউদ্দিন হাসান চৌধুরী, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ মামুন, পারভেজ সারেয়ার সহ উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা।

রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রাম

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি চট্টগ্রাম জেলা ও সিটি ইউনিটের উদ্যোগে যুব রেড ক্রিসেন্ট, চট্টগ্রাম এর বাস্তবায়নে জাতির জনকের শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হয়। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা ও রেড ক্রিসেন্ট পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালো পতাকা উত্তোলন, রেড ক্রিসেন্ট কার্যালয়ের সম্মুখে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি পুষ্পস্তবক অর্পণ, স্বেচ্ছায় রক্তদান ও সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়। জেলা রেড ক্রিসেন্টের মাঠ প্রাঙ্গণে দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে আলোচনা সভা যুব রেড ক্রিসেন্ট, চট্টগ্রাম এর যুব প্রধান গাজী মো. ইফতেকার হোসেন ইমু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন সোসাইটির ব্যবস্থাপনা পর্ষদ সদস্য ও জেলা রেড ক্রিসেন্ট ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ডা. শেখ শফিউল আজম, বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা রেড ক্রিসেন্টের সেক্রেটারী মো. আসলাম খান, সিটি রেড ক্রিসেন্ট সেক্রেটারী আব্দুল জব্বার। যুব রেড ক্রিসেন্ট, চট্টগ্রাম এর স্বাস্থ্য ও সেবা বিভাগীয় প্রধান ইস্তাকুল ইসলাম চৌধুরী ইশান এর সঞ্চালনায় অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি রেড ক্রিসেন্টের কার্যকরী পর্ষদ সদস্য মহসিন উদ্দীন চৌধুরী ফয়সাল, জেলা রেড ক্রিসেন্টের কার্যকরী পর্ষদ সদস্য শাহাদাত হোসেন রুমেল, রাশেদ খান মেনন, জেমিসন রেড ক্রিসেন্ট মাতৃসদন হাসপাতালের ইনচার্জ মো. মোস্তাফিজুর রহমান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. শেখ শফিউল আজম বলেন, বঙ্গবন্ধু একজন প্রকৃত দেশপ্রেমিক। তিনি ছিলেন একজন দার্শনিক। আজকের এই দিনের তাঁর আদর্শ ধারণ করে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। পরিশেষে বঙ্গবন্ধু ও ১৫ আগস্টের সকল শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

বিজিএমইএ

বিজিএমইএ চট্টগ্রাম অঞ্চলের উদ্যোগে গতকাল বুধবার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৭তম শাহাদাত বার্ষিকীতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে খুলশী বিজিএমইএ ভবনে খত্মে কোরআন, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। বিজিএমইএর প্রথম সহ-সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি রাকিবুল আলম চৌধুরী, পরিচালক এম. এহসানুল হক, মিরাজ-ই-মোস্তফা কায়সার, প্রাক্তন পরিচালক মোহাম্মদ মুসা, মোহাম্মদ সাইফ উল্ল্যাহ মনসুর, এনামুল আজিজ চৌধুরী, খন্দকার বেলায়েত হোসেন, মোহাম্মদ আতিক সহ পোশাক শিল্পের মালিক ও বিজিএমইএর কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
বিজিএমইএর প্রথম সহ-সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হারিয়ে সমগ্র জাতি শোকাহত ও মর্মাহত। বঙ্গবন্ধুর অবদানেই আজ বাংলাদেশ নামে স্বাধীন সার্বভৌম ভূখÐ বিশে^র বুকে মাথা উঁচু করে এগিয়ে চলেছে। মহান ভাষা আন্দোলন, পরবর্তী ৬ দফা সহ মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর আত্মত্যাগের প্রেক্ষাপট তুলে ধরে তিনি বলেন, তৈরি পোশাক শিল্প বেকারত্ব দূরীকরণে কর্মসংস্থান সৃষ্টি, নারীর ক্ষমতায়ন সহ উত্তরোত্তর রপ্তানী বৃদ্ধির মাধ্যমে অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধি অর্জন করে জাতির জনকের স্বপ্ন বাস্তবায়নে বিজিএমইএ নিরন্তর কাজ করছে। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বৈশ্বিক মন্দার চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে বাংলাদেশকে উন্নত ও অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধিশীল হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে শিল্প মালিকসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিজিএমইএ চট্টগ্রামের ধর্ম বিষয়ক স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান আবদুল হালিম দোভাষ। আলোচনা শেষে দোয়া ও মোনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান সমাপ্ত করা হয়।

নাসিরাবাদ শিল্পাঞ্চল ইউনিট আওয়ামীলীগ

১৫ আগস্ট সন্ধ্যায় রুবি গেইট আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে জাতির জনকের শাহাদাৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ৪২নং সাংগঠনিক ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের আওতাধীন নাসিরাবাদ শিল্পাঞ্চল ইউনিটের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। জাফর আহম্মদের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাসুদ খানের সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ৪২নং সাংগঠনিক ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম এ তাহের। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক বজল আহম্মদ, আওয়ামীলীগ নেতা মাকসুদ চৌধুরী, ইউনিটের সহ-সভাপতি জামাল উদ্দিন, বেলাল হোসেন রানা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম। উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগ নেতা জাফর আহম্মদ, কামাল আহমেদ, মো. আবু আহম্মদ, মাহবুবুল আলম, যুবলীগ নেতা আইয়ুব খান, মো. সালাউদ্দিন, মো. টিপু, মিজান, নুর আলমসহ ইউনিট আ.লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ।

যুবনেতা মো. আবুল বশর

জাতির জনকের শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল ও খাবার বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন আ.লীগ নেতা মো. মহিউদ্দিন বাচ্চু। শুলকবহর ওয়ার্ড যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও মহানগর যুবলীগ নেতা মো. আবুল বশর এর ব্যবস্থাপনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন চবি’র সাবেক সভাপতি শাহজাহান করিম চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা এড. মো. নোমান চৌধুরী, আবু সাঈদ জন, এস এম সাঈদ সুমন, সাখাওয়াত হোসেন স্বপ্ন, খোকন চন্দ্র তাতি, সনত বড়ুয়া, নাজমুল হাসান সাইফুল, আবু বক্কর চৌধুরী, আজিজ উদ্দিন, আরিফুল ইসলাম মাসুম, এড. রবি, সাইফুল ইসলাম, সফিকুল ইসলাম রিপন, হাসানুর রহমান, নজরুল ইসলাম, শহীদুল আলম, আবু তাহের, রাজা মিয়া, আবতাফ উদ্দিন প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি