শেখ হাসিনার পরিশ্রমের ফসল নৌকায় তুলতে হবে

3

 

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, প্রমত্তা পদ্মার ওপরে স্বপ্নের সেতু উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে যে নতুন ইতিহাসের সূত্রপাত হলো-যথারীতি এই স্বপ্নের সারথী হচ্ছেন বঙ্গবন্ধু তনয়া দেশরত্ন শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তিনি দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই একের পর এক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন ও স্বার্থক করে উদয়াস্ত পরিশ্রম করে চলেছেন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রীর উদয়াস্ত পরিশ্রমের ফল ও ফসলকে নৌকায় তুলে পরিপূর্ণ করতে হবে। গত সোমবার বিকেলে দারুল ফজল মার্কেটস্থ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সভায় রাজনৈতিক ও সাংগঠনিক নির্দেশনামূলক বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
তিনি মহানগর আওয়ামী লীগের সকল স্তরের নেতৃত্বের নতুন রক্ত সঞ্চালনের উপর গুরুত্বারোপ করে বলেন,নানা কারণে মহানগর কমিটি সহ থানা ও ওয়ার্ড কমিটিগুূেলা দীর্ঘদিন ধরে মেয়াদোত্তীর্ণ, তাই নেতৃত্বে ও সংগঠনে জট সৃষ্টি ছিল। এই জট নিরসনে মহানগর আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মেনে চলছে। তিনি জানান যে সমস্ত ওয়ার্ডে ৩টি ইউনিট সম্মেলন হয়েছে সেগুলি অনুমোদন দেয়া যেতে পারে এবং ঐ সকল ওয়ার্ডে ঈদের পর পর ওয়ার্ড সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সভাপতির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে প্রতিযোগিতা আছে এবং থাকবে।
তবে আওয়ামী লীগ কখনো ব্যক্তিক নয়, সামষ্টিক ও সর্বজনীন। তিনি আরো বলেন, আমরা যদি নিজেরা একে অপরের প্রতিপক্ষ হই, তাহলে আমাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ ঝোপ বুঝে কোপ মারবে। এতে আমরা ক্ষত-বিক্ষত হবো এবং হচ্ছি।
এভাবে চললে নিজেদের বারোটা বাজবে এবং দেশ ও জাতির বারোটা বাজতে আর দেরি হবে না। সভায় উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী, এড. সুনীল কুমার সরকার, এড. ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বদিউল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক্ শফিকুল ইসলাম ফারুক, দপ্তর সম্পাদক হাসান মাহমুদ শমসের প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি