শূন্য কোটায় হজে যেতে আবেদন ১০ মে’র মধ্যে

16

পূর্বদেশ ডেস্ক

পঁয়ষট্টি বছরের বেশি বয়সী কেউ এবার হজ করতে পারবেন না বলে ঘোষণা হয়েছে আগেই; তবে বয়সের সীমা পেরোনো এমন কোনো নিবন্ধিত ব্যক্তির পরিবারের সদস্য তার পরিবর্তে হজে যেতে পারবেন। এমন শূন্য কোটায় হজে যেতে হলে প্রাক-নিবন্ধন সম্পন্ন করে আগামী ১০ মে’র মধ্যে আবেদন করতে বলছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। গত বৃহস্পতিবার ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় এই সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করে।
মহামারীর কারণে দুই বছর বন্ধ থাকার পর এবার বিদেশিদের হজের অনুমতি দিচ্ছে সৌদি আরব। আগামী জুলাই মাসের প্রথম ভাগে হজ অনুষ্ঠিত হবে। এবার বাংলাদেশ থেকে ৫৭ হাজার ৮৫৬ জন হজে যেতে পারবেন। সর্বশেষ নিবন্ধিত হজযাত্রীর সংখ্যা সরকারি ব্যবস্থাপনায় ২ হাজার ৬০৫ জন আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৫১ হাজার ৮৮২ জন অর্থাৎ মোট ৫৪ হাজার ৪৮৭ জন। খবর বিডিনিউজের
হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি শাহাদাত হোসেন তসলিম বলেন, ৬৫ বছরের বেশি ১০ হাজার মতো নিবন্ধন করা হজযাত্রী রয়েছে। তাদেরকে শূন্য কোটায় নিবন্ধন করতে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে মন্ত্রণালয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, যেসব হজযাত্রী ২০২০ সনের হজে যাওয়ার জন্য নিবন্ধন করেছেন এবং বয়স এরই মধ্যে ৬৫ বছর অতিক্রম করছে, তার পরিবর্তে তার পরিবারের একজন সদস্য (৬৫ বছরের কম বয়সী) এ শূন্য কোটায় হজে যাওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবেন।
শূন্য কোটায় হজে যেতে আগ্রহীদের বেসরকারি এজেন্সির ক্ষেত্রে নিজ নিজ এজেন্সির মাধ্যমে এবং সরকারি ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে সরকারি ব্যবস্থাপনায় দ্রুত প্রাক-নিবন্ধন গ্রহণ করে আগামী ১০ মে’র মধ্যে প্রাক-নিবন্ধনের ট্র্যাকিং নম্বর এবং যার পরিবর্তে হজে যেতে চান তার ট্র্যাকিং নম্বর স্লিপসহ ঢাকার আশকোনায় হজ অফিসের পরিচালকের কাছে সরাসরি বা hajjofficeashkona@gmail.com ইমেইলে আবেদন করতে বলা হয়েছে।