শীতবস্ত্র বিতরণ জনক-জননী ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন

5

সমাজসেবক ফরিদ মাহমুদ বলেছেন, করোনা মহামারিতে সারাবিশ্বের উন্নত দেশগুলোর অর্থনৈতিক পরিস্থিতি পর্যুদস্ত। জিডিপি পেছালেও এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এখন দরকার আমাদের সতর্কতা ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা। শীতের সময় সংক্রমণ থেকে রেহাই পেতে টিকা নেওয়া জরুরি। জনক-জননী ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম এর উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ কর্মসূচি উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। পাহাড়তলী লাকি হোটেল মোড় নুর কনভেনশন হলে যুব সংগঠক রাশেদ চৌধুরীর পরিচালনায় আলোচনায় অংশ নেন সাবেক কাউন্সিলর সাবের আহমেদ সওদাগর, লায়ন মোহাম্মদ শওকত আলী, লুৎফর রহমান খুশী, পাহাড়তলী সমাজ কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ হাবিব উল্ল্যাহ, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নিতু, মহানগর যুবলীগ সদস্য শেখ নাছির আহমেদ, আশরাফুল গনি চৌধুরী, দেলোয়ার হোসেন দেলু, আওয়ামীলীগ নেতা মোহাম্মদ সেকান্দার, মোহাম্মদ ইছহাক, অ্যাডভোকেট আলী হোসেন, জাহেদুল আলম মুরাদ, মোহাম্মদ জাবেদ, মোস্তাক মাহমুদ সুমন, মোহাম্মদ ফজলু, মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, আনিসুর রহমান মামুন, মোহাম্মদ আনসার প্রমুখ। শেষে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়।
মমতাজ উদ্দিন চৌধুরী ফাউন্ডেশন
গতকাল সকাল ১০টায় কক্সবাজার নুনিয়ার ছড়ায় কম্বল বিতরণ করেছে মরহুম মমতাজ উদ্দিন চৌধুরী ফাউন্ডেশন। কাদেরিয়া তৈয়্যবীয়া মাদরাসার ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারীদেরকে কম্বল বিতরণ করেন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান শাহাদাত হোসেন চৌধুরী রুমেল। এছাড়া নগরীর বেশ কয়েকটি স্পটে মমতাজ উদ্দিন চৌধুরী ফাউন্ডেশন গত ৭ দিন যাবৎ শীতবস্ত্র বিতরণ করে আসছে। পশ্চিম বাকলিয়া মমতাজ উদ্দিন চৌধুরী বাই লেইন, দেওয়ান বাজার মদিনা হেফজখানা ও এতিমখানা, পাঁচলাইশ এসএসবিএইচ স্কুল, নগরীর ষোলশহর খানকাহ শরীফ, রাজধানীর মুহাম্মদপুর কাদেরিয়া তৈয়্যবিয়া মাদরাসা, সিলেট মইয়ারচর কাদেরী তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়া হেলিমিযা মাদরাসার হেফজখানা, কালিপুর ইজ্জত নগরের দুঃস্থদের কম্বল বিতরণ করে মরহুম মমতাজ বেগম চৌধুরী ফাউন্ডেশন। কম্বল বিতরণ উদ্বোধন করেন ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা মুহাম্মদ মহসিন। বিজ্ঞপ্তি