শিক্ষার অভূতপূর্ব মানোন্নয়নে শেখ হাসিনার সরকার রেকর্ড সৃষ্টি করেছে

20

সীতাকুন্ড প্রতিনিধি

‘ক্লাস ওয়ান থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত বিভিন্ন দেশের সরকার শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি দিয়ে থাকে। কিন্তু আমাদের দেশে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার মাধ্যামিক ও উচ্চ মাধ্যামিক পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি দিয়ে আসছে। আর উপবৃত্তি দেওয়ার সময় কে আওয়ামী লীগের ছেলে-মেয়ে, আর কে বিএনপি-জামায়াতের ছেলে-মেয়ে এটা দেখা হচ্ছে না। সরকার সবাইকে এক কাতারে দেখে উপবৃত্তি দিচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বদান্যতায় আমি গত দশ বছরে শিক্ষাখাতে সীতাকুÐে যেই উন্নয়ন করেছি, আগামি দশ বছরেও আর শিক্ষাখাতে উন্নয়নের দরকার হবে না। সীতাকুÐের মতো সারা বাংলাদেশে শিক্ষার অভ‚তপূর্ব মানোন্নয়নে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার যে রেকর্ড সৃষ্টি করেছে তা আগামি কয়েক দশকেও অন্য কেউ করতে পারবে না। এটা রেকর্ড, এটা ইতিহাস’।
গতকাল সোমবার বড় দারোগার হাট আব্দুর রউফ মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের ৪র্থ তলা ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রবাসি কল্যাণ ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য দিদারুল আলম এমপি।
এসময় তিনি আরও বলেন, ‘উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনা সরকারের বিকল্প নেই। বিএনপি-জামায়াতের অগ্নিসন্ত্রাসীদের রুখে দিতে হবে। মানুষ আর বিএনপি-জামায়াতের আগুনে পুড়তে চায় না। মানুষের প্রয়োজন উন্নয়ন। এখন শেখ হাসিনার স্বপ্ন দেশকে স্মার্ট বাংলাদেশে রুপান্তরিত করা। সেই লক্ষ্যে আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক নৌকায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে পুনরায় প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করা জরুরি’
বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি এসএম তৌহিদুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং সহ-প্রধান শিক্ষক বিকাশ চন্দ্র দেবের পরিচালনায় এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা মাধ্যামিক শিক্ষা কর্মকর্তা এস মোস্তফা আলম সরকার, বারৈয়াঢালা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. সিরাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষানুরাগী সদস্য সাইদুল ইসলাম, প্রধান শিক্ষক এএসএম বাহার উদ্দিন, বারৈয়াঢালা ইউপি সদস্য মো. মোমিন, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য সেলিম উদ্দিন, তৌহিদুল আনোয়ার চৌধুরী স্বপন, দুলাল চন্দ্র দে। অনুষ্ঠান শেষে কৃতি শিক্ষার্থীদের হাতে সম্মাননা স্মারক ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়।