লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং পারিজাত এলিটের চার্টার বার্ষিকী উদ্যাপন

2

 

সারা বিশ্বের মতো কোভিড-১৯ এ আমাদের দেশও বিপর্যস্ত। প্রতিকূল পরিবেশেও আমরা যেন মানবতার সেবা ও টেকসই উন্নয়নে নিবেদিত থাকতে পারি সে লক্ষ্যে আমাদের কাজ করতে হবে। সেবার ব্রতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়েই আমরা লায়নিজমে প্রতিশ্রuতিবদ্ধ। সমাজের সমস্ত সংর্কীণতা দূর করার মাধ্যমে শিক্ষা, স্বাস্থ্য তথা উন্নয়নের প্রতিটি স্তরে মানবিক হয়ে কাজ করবো এবং মানবতার জয় গান গাইবো।
লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং পারিজাত এলিটের ১৩তম চার্টার নাইট, মাননীয় প্রাক্তন জেলা গভর্ণরদের সম্মাননা, একুশে পদক প্রাপ্তিতে প্রাক্তন গভর্ণর লায়ন এম এ মালেক এর সম্মাননা এবং নতুন সদস্যদের অভিষেক ও শপথ অনুষ্ঠান গত ১২ মে হোটেল আগ্রাবাদের ইছামতী হলে অনুষ্ঠিত হয়।
কেক কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ও এ উপলক্ষে প্রকাশিত স্যুভেনিয়রের মোড়ক উম্মোচন এবং ক্লাবের নতুন সদস্যদের স্বাগত ও শপথ বাক্যে পাঠ করান সম্মানীত জেলা গভর্নর লায়ন আল সাদাত দোভাষ পিএমজেএফ।
লায়ন আয়েশা হক শিমু সঞ্চলনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে লায়নিজমের আনুগত্যের শপথ পাঠ করান ক্লাব টেমার লায়ন লায়ন আমরিন রহমান হোসাইন ও লিও শপথ পাঠ করান লিও ভাইস প্রেসিডেন্ট লিও রেজাউল করিম ইফতি। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ১৩তম চার্টার নাইট অর্গানাইজার কমিটি ও রিজিওন চেয়ারপার্সন লায়ন জাহানার বেগম। ক্লাবের বার্ষিক প্রতিবেদন পাঠ করেন ক্লাব সেক্রেটারি লায়ন মির্জা মোহাম্মদ ইলিয়াস।
ক্লাব প্রেসিডেন্ট লায়ন মোহাম্মদ জামাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল এর সদ্য প্রাক্তন ইন্টারন্যাশনাল ডাইরেক্টর লায়ন কাজী আকরাম উদ্দীন আহমেদ পিএমজেএফ। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা গভর্নর লায়ন আল সাদাত দোভাষ পিএমজেএফ, সদ্যপ্রাপ্ত জেলা গভর্নর লায়ন ডা. সুকান্ত ভট্টাচার্য এমজেএফ। অতিথি ছিলেন প্রথম ভাইস জেলা গভর্নর লায়ন এস.কে শামসুদ্দিন আহমেদ সিদ্দিক পিএমজেএফ, দ্বিতীয় জেলা গভর্নর মো. এম.ডি মহিউদ্দিন চৌধুরী এমজেএফ, প্রাক্তন জেলা গর্ভনরবৃন্দ, কেবিনেট সেক্রেটারি, কেবিনেট ট্রেজারার। পিডিজি এমএ মালেক, রুপম কিশোর বড়ুয়া পিএমজেএফ, মো. নাসিরউদ্দিন চৌধুরী এমজেএফ, মো. মোশতাক হোসাইন এমজেএফ, এস.এম. শামসুদ্দীন এমজেএফ, মো কবিরউদ্দিন ভূঁইয়া, মো. মনজুর আলম মনজু পিএমজেএফ ও কামরুন মালেক এমজেএফ প্রমুখ।
আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক মুখ্যসচিব ও ইউসেপ বাংলাদেশ এর নির্বাহী পরিচালক ড. মো. আবদুল করিম, ঘাসফুল চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মনজুর-উল-আমিন চৌধুরী, অব. প্রাপ্ত সাবেক এসিসন্টে কমিশনার মিহির কিরণ চাকমা ও সাংবাদিক ওসমান গনি মনসুর।