লর্ডসে বিধ্বস্ত আয়ারল্যান্ড

31

ইংল্যান্ডকে প্রথম ইনিংসে ৮৫ রানে গুটিয়ে দিয়ে অসাধ্য সাধনের পথে ছিল আয়ারল্যান্ড। লক্ষ্যটা ১৮২ রানে রাখতে পেরেও সেই অসাধ্য সাধন আর হলো না। উল্টো প্রথম ইনিংসে পঞ্চম সর্বনিম্ন স্কোর করেও টেস্টে ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তনের অসাধারণ নজির গড়েছে স্বাগতিকরা। লর্ডসে স্টুয়ার্ট ব্রড, ক্রিস ওকসের বোলিং তোপে পুরোপুরি বিধ্বস্ত আইরিশরা। দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ৩৮ রানে গুটিয়ে গেছে তারা। আর ইংল্যান্ড জয় পেয়েছে ১৪৩ রানের।
প্রথম ইনিংসে মাত্র ৮৫ রানে গুটিয়ে গিয়ে এমন টেস্ট জয়ের নজির অবশ্য নিকট অতীতে নেই ইংলিশদের। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে এমন অসাধ্য সাধন হয়েছে ক্রিস ওকস ও স্টুয়ার্ট ব্রডের বিধ্বংসী বোলিংয়েই। ১৫.৪ ওভারে লর্ডসে টেস্টের সর্বনিম্ন স্কোরে আইরিশদের গুটিয়ে দিতে পেরেছে তারা। এই মাঠে এর আগে ১৯৭৪ সালে ভারতকে ৪২ রানে গুটিয়ে দিয়েছিল স্বাগতিকরা। সার্বিকভাবে টেস্টের এই সর্বনিম্ন স্কোরের অবস্থান সাতে।
এমনটি করতে ক্যারিয়ার সেরা বোলিং করেছেন সম্ভব ক্রিস ওকস। ১৭ রান দিয়ে নিয়েছেন ৬ উইকেট। ১৯ রানে বাকি চারটি নিয়েছেন স্টুয়ার্ট ব্রড।
৯ উইকেটে ৩০৩ রানে দ্বিতীয় দিন শেষ করা ইংল্যান্ড তৃতীয় দিন নেমেই গুটিয়ে যায় শুরুতে। দিনের প্রথম বলে স্টোন বিদায় নিলে আগের দিনের স্কোরেই শেষ হয় ইংলিশদের দ্বিতীয় ইনিংস। আইরিশরা পায় ১৮২ রানের লক্ষ্য।
ছোট লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৩ ওভার পরই ইংলিশদের বোলিং আগ্রাসনের মুখোমুখি হয় আইরিশরা। তাসের ঘরের মতো ধসে পরে আইরিশদের ব্যাটিং লাইন আপ। এক জেমস ম্যাককলামই ডাবল ডিজিটে ১১ রান করতে পেরেছেন। ম্যাচসেরা নাইটওয়াচম্যান হয়ে ৯২ রান করা জ্যাক লিচ।