রাত পোহালেই সন্দ্বীপের দীর্ঘাপাড় ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন

40

সন্দ্বীপ প্রতিনিধি
সন্দ্বীপ উপজেলার দীর্ঘাপাড় ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন ৩১ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনকে ঘিরে নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রায় চার শতাধিক সদস্য মাঠে রয়েছেন। চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ায় মেম্বার প্রার্থীদের মাঝে ভোটের লড়াই হবে বলে ভোটারদের ধারণা।গত ১৫ জুন দীর্ঘাপাড় ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। নির্বাচন কমিশনে অভিযোগের কারণে ভোট গ্রহণে স্থগিতাদেশ দেয়। অভিযোগ তদন্তের পর পুনরায় ৩১ জুলাই ভোট গ্রহণের দিন নির্ধারণ করে। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দুইজন মনোনয়ন সংগ্রহ করেন। পরে একজন প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেন। মাঠে একমাত্র প্রার্থী হিসেবে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আবুল কাশেম চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন। সাধারণ সদস্যের ৯ পদের বিপরীতে ২৮ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্যের ৩ পদে ৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। ইউনিয়নের মোট ভোটার সংখ্যা ১ হাজার ৩’শ ৪৮ জন। এদের মধ্যে নারী ভোটার ৬৭৫ জন এবং পুরুষ রয়েছেন ৬৭৩ জন। নির্বাচনে ৯ টি কেন্দ্রের ১৮ টি বুথে ভোট গ্রহণ করা হবে। এরমধ্যে অস্থায়ী কেন্দ্র রয়েছে ২টি। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আবদুল কাদের জানান, নির্বাচন উপলক্ষে যাবতীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। নির্বাচনের আগের দিন (শনিবার) মালামাল কেন্দ্রে পৌঁছানো হয়েছে। ভোটের দিন সকালে কেন্দ্রে ব্যালট পাঠানো হবে।নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরেপক্ষ করতে  ৩ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ১ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাঠে থাকবেন। নির্বাচন উপলক্ষে বিপুল পরিমাণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশের পাশাপাশি র‍্যাব, কোস্ট গার্ড ও আনসার সদস্যরা মাঠে থাকবেন। সন্দ্বীপ থানার পুলিশ ওসি বশির আহম্মদ খান বলেন, নির্বাচনে শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষায় প্রায় তিনশ পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।