রাঙামাটি তপোসুর সাংস্কৃতিক একাডেমির ৫ম বর্ষপূর্তি

52

রাঙামাটি সাংস্কৃতিক অঙ্গনের অন্যতম সাংস্কৃতিক সংগঠন তপোসুর সাংস্কৃতিক একাডেমির ৫ম বর্ষপূর্তিতে নিরুপা দেওয়ান এবং সাংবাদিক সুনীল কান্তি দে’কে সম্মাননা প্রদান করা হল। সেই সাথে বার্ষিক সঙ্গীত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের সনদপত্র বিতরণ, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা এবং মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
গত ৯ নভেম্বর রাঙামাটি জেলা শিশু একাডেমিতে প্রধান অতিথি থেকে গুণীজন সম্মাননা এবং একাডেমির বার্ষিক সঙ্গীত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের ক্রেস্ট ও সম্মাননা প্রদান করেন রাঙামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ। সংগঠনের সভাপতি সুবল বিশ্বাসের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মিলন ধরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সংবর্ধিত গুণীজন, শিক্ষাবিদ, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও মানবাধিকার কর্মী নিরুপা দেওয়ান, সাংবাদিক, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সাংবাদিক সুনীল কান্তি দে, রাঙামাটি সরকারি কলেজে ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক অনির্বাণ বড়ুয়া, ধ্রæব সংস্কৃতিক পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সরূপ দেবনাথ, কাপ্তাই প্রেস ক্লাব এবং সাংস্কৃতিক একাডেমির সাধারণ সম্পাদক ঝুলন দত্ত।
এর আগে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন রাঙামাটি জেলা শিল্পকলা একাডেমির কালচারাল অফিসার অনুসিনথিয়া চাকমা।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশীদ বলেন, সংস্কৃতি চর্চার মাধ্যমে মানুষের মধ্যে মানবিক গুনাবলী বিকশিত হয়, ভ্রাতৃত্যের বন্ধন সুদৃঢ় হয়।
এদিকে তপোসুর সাংস্কৃতিক একাডেমির ৫ম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে জেলা শিশু একাডেমিতে সংগঠনের আয়োজনে শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এতে শতাধিক প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন।
পরে বেতার শিল্পী সুবল বিশ্বাসের পরিচালনায় ত্রিতালে সমবেত তবলার লহড়ার মাধ্যমে দ্বিতীয় পর্বের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয়। এক ঝাঁক নবীন তবলা শিল্পীদের পরিবেশনায় তবলার লহড়া উপস্থিত দর্শক শ্রোতা উপভোগ করে তুমুল করতালিতে। এরপর একাডেমির শিশু শিক্ষার্থীদের কন্ঠে ‘সুর সাগরে সাতটি সুরের নৌকা আছে বাঁধা’ এবং রবীন্দ্র সংগীত ‘আমরা সবাই রাজা’ গান দুইটির পরিবেশনা মুগ্ধতার আবেশ ছড়ায়।
শিল্পী মিলন ধরের সংগীত পরিচালনায় একাডেমির ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থীদের সমবেত কণ্ঠে নজরুল সংগীত এবং দেশের গান পরিবেশনা দর্শক শ্রোতার অকুন্ঠ প্রশংসা করেন। অনুষ্ঠানে তৃষা দেওয়ান, সেলিমা আফসানা মীম, দীঘি বিশ্বাস, দীপ্ত চাকমা, সুস্মি চাকমা, ঐন্দ্রিলা বিশ্বাস, আদিত্য চক্রবর্তী এবং জয়িতা বড়–য়ার কণ্ঠে একক গান পরিবেশনা ছিল অনবদ্য।
সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যন্ত্রসংগীত এ সহযোগিতা করেন কিবোর্ড এ রাহুল দে, তবলায়: সুবল বিশ্বাস, অনুজ চৌধুরী, অন্তর দে, রুমিও ধর এবং অক্টোপ্যাড এ অর্জুন দাশ যথাযথ সহায়তা করেন।