রাঙামাটিতে লকডাউনে কঠোর অবস্থানে জেলা ট্রাফিক পুলিশ

6

কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে রাঙামাটি লকডাউনে কঠোর অবস্থানে জেলা ট্রাফিক পুলিশ। জেলা পুলিশ সুপারের আদেশক্রমে করোনা সচেতনতায় রাঙামাটিতে জেলা ট্রাফিক পুলিশ সরকারের বিধিনিষেধ পালন করতে যানবাহন চলাচলে কঠোর অবস্থানে। লকডাউনে জনগণকে সচেতন করতে ও কেউ যেন ঘর থেকে বের না হয় এবং সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে ট্রাফিক পুলিশের এ তৎপরতা। গত বুধবার শহরের বাণিজ্যিক কেন্দ্র বনরুপাস্থ পুলিশ বক্সের সামনে জেলা ট্রাফিক পুলিশের ইনচার্জ মো. ইসমাইলের নেতৃত্বে জরুরি সেবা ব্যতিত অন্যান্য নম্বর বিহীন সিএনজিও মোটরসাইকেল আরোহীদের সর্তক করে অভিযান পরিচালনা করা হয়। তবে কেউকে অর্থদন্ড করা হয়নি। করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে ও সরকারি নির্দেশ মানাতে জনসাধারণকে সচেতন করা হয়েছে। তারপরও বিভিন্ন অজুহাতে মানুষ পুলিশের চোখে ফাঁকি দিয়ে ঘরে থেকে বের হচ্ছে। মানুষ কোন মতেই লকডাউন মানতে রাজি না। জেলা ট্রাফিক পুলিশের ইনচার্জ মো. ইসমাইল হোসেন জানান, পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশক্রমে ট্রাফিক পুলিশ করেনা সচেতনতায় কাজ করে যাচ্ছে। সরকার বলছেন একান্ত জরুরি কাজ ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হবে না। কিন্তু এখন দেখছি এক মোটরসাইকেলে ৩ জন ঘুরাঘুরি করছে। এছাড়াও কারণে অকারণে বিভিন্ন অজুহাতে নম্বর বিহীন সিএনজি বের করে বাজারে এসে লোকজন ভীড় জমাচ্ছে। তাই লোকজনের উদাসিনতা চরমে। এসব নিয়ন্ত্রণে আনতেই জেলা ট্রাফিক পুলিশ কঠোর অবস্থানে নেমেছেন।