রাউজানে ছেলেধরা সন্দেহে নারীকে পুলিশে সোপর্দ

47

রাউজানে ছেলেধরা সন্দেহে এক মহিলাকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। ওই মহিলার পরিচয় নিশ্চিত হয়ে তাকে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ।
গতকাল রবিবার অপ্রীতিকর ঘটনা থেকে রক্ষা পাওয়া ওই মহিলার নাম রওশন আরা বেগম (৪০)। তিনি রাউজান উপজেলার চিকদাইর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ সর্তা গ্রামের মৃত মো. মিয়ার কন্যা। গত দুই বছর আগে তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়লে দুই ছেলেকে পটিয়া শিশু পরিবারে দিয়ে দেন স্বজনরা। এরপর থেকে ছেলেদের সন্ধানে প্রায়ই ঘর থেকে বের হয়ে যান তিনি। সর্বশেষ শনিবার রাত ৯টায় রাউজান পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাদল মাস্টার বাড়িতে তার দুই ছেলের সন্ধানে যান তিনি। সেখানে এলাকাবাসীর সন্দেহ হওয়ায় ৯৯৯ নম্বরে এবং পরে রাউজান থানায় জানানো হয়। খবর পেয়ে রাউজান থানার এসআই ইব্রাহিম খলিলসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই মহিলাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান। পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার রওশন আরা বেগমের স্বজনদের খবর দিলে ভগ্নিপতি রমজান আলী, ভাগনে আরিফুল ইসলাম, ভাবি রুবি আকতার ও স্থানীয় ইউপি সদস্য মোদাসসের হায়দার থানায় যান। শনিবার রাত ১২টা ১৫ মিনিটের সময় রাউজান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কেপায়েত উল্লাহ তার স্বজনদের নিকট হস্তান্তর করেন।
তিনি (ওসি) বলেন, ছেলে ধরা সন্দেহ হওয়ার পরও মারধর না করে থানায় খবর দিয়ে বাদল মাস্টার বাড়ির লোকজন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। গুজবে কান না দিয়ে ছেলে ধরা সন্দেহ হলে থানায় খবর দেওয়ার আহবান জানান তিনি।