মোটরবাইক আরোহী পিতার সামনে পুত্রের মৃত্যু

5

সীতাকুন্ড প্রতিনিধি

সীতাকুন্ডে সড়ক দুর্ঘটনায় মো. আবু তালেফ নয়ন (১৮) নামের এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। একই ঘটনায় আহত হয়েছেন তার পিতাসহ আরো দুইজন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সোনাইছড়ি ইউনিয়নের শীতলপুর মদানহাট এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত নয়ন সোনাইছড়ি ইউনিয়নের মদনহাট এলাকার সালাহউদ্দিনের পুত্র।
জানা যায়, নয়ন ও তার পিতাসহ তিনজন মোটরসাইকেল যোগে বৃহস্পতিবার দুপুরে শীতলপুরের নিজ বাড়ি থেকে ভাটিয়ারী যাচ্ছিল। এসময় মহাসড়কের শীতলপুর মদনহাট এলাকায় একই দিকে চট্টগ্রামমুখী একটি কার্ভাডভ্যান মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দিলে পিতাসহ দুইজন সড়কের বামপাশে পড়ে যায় এবং মোটরসাইকেল চালক নয়ন কাভার্ডভ্যানের সামনে পড়ে গুরুতর আহত হন। আহতাবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে নয়নকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত দুইজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।
সীতাকুন্ডের বার-আউলিয়া হাইওয়ে থানার ওসি বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, একটি কাভার্ডভ্যান মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দিলে নয়ন ও তার পিতাসহ ৩ জন আহত হন। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে নয়নকে চমেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশটি পাঁচলাইশ থানা পুলিশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে। ঘাতক কাভার্ডভ্যানটি আটক করে থানায় নিয়ে এসেছি।