মিরসরাইয়ে স্বামীর সাথে অভিমানে স্ত্রীর আত্মহত্যা

2

মিরসরাইয়ে স্বামীর সাথে ঝগড়া করে এক প্রবাসীর স্ত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। খালেদা আক্তার মুক্তা (৩০) নামের এই গৃহবধূ কুয়েত প্রবাসী শরীফুল ইসলামের স্ত্রী। খালেদা আক্তার তার ৫ বছরের শিশু সন্তানকে নিয়ে বারইয়ারহাট পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের অন্তরঙ্গ ভবনের ৪র্থ তলায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন।
পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে স্বামীর সাথে রবিবার রাতে তার ঝগড়া হয় বলে জানা গেছে। গতকাল সোমবার সকালে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে খালেদা বেগমের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। শরীফুল ইসলামের বাড়ি উপজেলার ৪নং ধুম ইউনিয়নের মোবারকঘোনা গ্রামে। আর খালেদা আক্তার ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার বাসিন্দা।
জোরারগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হেলাল উদ্দিন ফারুকী বলেন, কুয়েতপ্রবাসী স্বামী শরীফুল ইসলামের সাথে ঝগড়া করে তার স্ত্রী খালেদা বেগম মুক্তা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে। খবর পেয়ে খালেদা বেগমের ঝুলন্ত অবস্থায় থাকা লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়। লাশের ময়না তদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হবে।