মিরসরাইয়ে বিদ্রোহী প্রার্থীর অফিসে হামলা, ভাংচুর

6

মিরসরাই প্রতিনিধি

আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ৯নং মিরসরাই সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিপরীতে বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়া সাইফুল্লাহ দিদারের অফিসে ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মিঠাছরা বাজার এলাকায় তার অফিসে ১০-১২ জনের একটি শসস্ত্র দল হামলা চালিয়ে অফিসের বিভিন্ন জিনিসপত্র ভাংচুর করে।
এই বিষয়ে সাইফুল্লাহ দিদার বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ১০-১২ জনের একটি শসস্ত্র দল এসে আমার ব্যবসায়িক অফিস ভাংচুর করে। এসময় তারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি, শেখ হাসিনা, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি, মাহবুব রহমান রুহেল ও বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের ছবিসহ আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র নিয়ে যায় এবং অফিসের আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র ভাংচুর করে। আমি এই বিষয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিস ও মিরসরাই থানায় লিখিত অভিযোগ দেব।
মিরসরাই থানার উপ-সহকারী পরিদর্শক জসিম উদ্দিন জানান, অফিস ভাংচুরের বিষয়ে এখনো কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
অন্যদিকে ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় সাইফুল্লাহ দিদারকে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। তিনি ৯নং মিরসরাই সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর প্রতিদ্ব›দ্বী হিসেবে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনেও মনোনয়ন প্রত্যাহার না করায় তার বিরুদ্ধে এই সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।
উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক সৈয়দ মোহাম্মদ আলতাফ হোসেন বলেন, মিরসরাই সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে সাইফুল্লাহ দিদার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড তাকে মনোনয়ন না দেওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে প্রার্থী হন। যা দলীয় শৃংখলা ও দলীয় নির্বাচনের পরিপন্থী। দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের কারণে মিরসরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির যুগ্ম সম্পাদকের দায়িত্ব থেকে তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। এছাড়া অন্য বিদ্রোহী প্রার্থীদের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিবেন।
প্রসঙ্গত, এবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ইছাখালী ইউনিয়ন, মিরসরাই সদর ইউনিয়ন ও খৈইয়াছড়া ইউনিয়নে মনোনয়ন বঞ্চিত ৫ জন আওয়ামী লীগ নেতা বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন।