মিরসরাইয়ে নৈশপ্রহরীকে বেঁধে রেখে ইউপিতে ডাকাতি

6

মিরসরাই প্রতিনিধি

মিরসরাইয়ে ইউনিয়ন পরিষদের নৈশ প্রহরীকে মারধর করে রশি দিয়ে বেঁধে রেখে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। গত মঙ্গলবার রাতে উপজেলার ৮নং দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদে এই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে গতকাল বুধবার সকালে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
জানা গেছে, মুখোশধারী ৬ জনের একটি ডাকাত দল ইউনিয়ন পরিষদের নৈশ প্রহরী কার্তিক দাশকে মারধর করে রশি দিয়ে বেঁধে রেখে দুটি ল্যাপটপ ও নগদ ৪৬ হাজার টাকা নিয়ে গেছে। আহত কার্তিককে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মস্তাননগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান বিপ্লব বলেন, মঙ্গলবার রাত দেড়টার সময় ৬ সদস্যের একটি দল ইউনিয়ন পরিষদের নৈশ প্রহরীকে মারধর করে পরিষদের সচিব কাঞ্চন পালের কক্ষের দরজার তালা ভেঙে নগদ ৪৬ হাজার টাকা, ১টি ল্যাপটপ এবং ইউনিয়নের দায়িত্বরত উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মঞ্জুর হায়দারের একটি ল্যাপটপ নিয়ে গেছে। বিষয়টি আমি বুধবার সকালে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশকে অবহিত করলে তারা এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
মিরসরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মস্তাননগর হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. অপূর্ব বলেন, বুধবার সকালে কার্তিক দাশ নামে একজন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তার মাথা, হাতের আঙ্গুল ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম রয়েছে।
জোরারগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নুর হোসেন মামুন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। সিসিটিভির ফুটেজ দেখে জড়িতদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। তবে এই ঘটনায় এখনো কোন মামলা হয়নি।