মানবসেবা ছিলো আল্লামা হাশেমীর আজীবনের ব্রত

5

অলিয়ে কামেল সুলতানুল ওয়ায়েজিন শাহসূফী আল্লামা কাযী আহছানুজ্জামান হাশেমী (রহ.) এর ৫২ তম এবং পীরে তরিকত ফকিহে বাঙাল আল্লামা কাযী আমিনুল ইসলাম হাশেমী (রহ.) এর ১৫তম তিনদিনব্যাপী ওরশ শরিফ সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে গত ৫ এপ্রিল সোমবার বায়েজিদ জালালাবাদস্থ আল আমিন হাশেমী দরবার শরিফে পালিত হয়েছে। প্রথম দিবস ৩ এপ্রিল আশকানে মোস্তফা (দ.) তরুণ পরিষদ ও চট্টগ্রাম জেলা রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি আয়োজিত ফ্রি-চিকিৎসা ও খতনা ক্যাম্প, নাতে রাসূল (দ.) প্রতিযোগিতা, ৪ এপ্রিল পুরস্কার বিতরণী ও মোশায়েরা মাহফিল, মাজার সমূহ জিয়ারত, গিলাপ চড়ানো ও মুনাজাত এবং ৫ এপ্রিল সমাপনী দিনে হুজুর কেবলাদ্বয়ের জীবনী আলোচনা, মিলাদ মাহফিল ও আখেরি মুনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন আল-আমিন হাশেমী দরবার শরীফের সাজ্জাদানশিন ও আনজুমানে আশেকানে মোস্তফা (দ.) বাংলাদেশ-এর সভাপতি পীরে তরিকত আল্লামা কাযী মুহাম্মদ ছাদেকুর রহমান হাশেমী (মজিআ)। প্রধান অতিথি ছিলেন জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ অছিয়র রহমান। তিনি বলেন, আল্লামা শাহসূফী কাযী আহছানুজ্জামান হাশেমী (রহ.) এবং আল্লামা কাযী আমিনুল ইসলাম হাশেমী (রহ.) আজীবন ওয়াজ মাহফিলসহ নানাবিধ উপায়ে সুন্নিয়ত ও দ্বীনের খেদমতে নিয়োজিত ছিলেন। সভাপতির বক্তব্যে আল্লামা কাযী ছাদেকুর রহমান হাশেমী বলেন, দ্বীন প্রচার এবং মানবসেবাকে তাঁরা জীবনের ব্রত হিসেবে নিয়েছিলেন। তাঁরা বিশ্বাস করতেন মানবসেবাই সর্বোত্তম ইবাদত। আল-আমিন হাশেমী দরবার শরীফের দ্বীনি ও সেবামূলক নানা পদক্ষেপ সবার ক্ষেত্রে অনুসরণীয় দৃষ্টান্ত হয়ে আছে। চিকিৎসা সেবা ক্যাম্প উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান রাজনীতিবিদ ও সংগঠক ডা. শেখ শফিউল আজম। তিনি বলেন, ওলি বুজুর্গের জীবনাদর্শই হচ্ছে দ্বীন প্রচার ও জনকল্যাণ। আল-আমিন হাশেমী দরবার শরীফের মহাত্মারা আজীবন এ পথেই নিবেদিত আছেন। ওরশ মাহফিলে অতিথি ও আলোচক ছিলেন আলহাজ্ব কাযী মুদাচ্ছির হাশেমী, পীরে তরিকত আল্লামা কাযী শাহেদুর রহমান হাশেমী, শাহজাদা মাওলানা কাযী আশেকুর রহমান মুজিব হাশেমী, শাহজাদা হাফেজ মাওলানা কাযী খালেদুর রহমান হাশেমী, আঞ্জুমান সেক্রেটারি সাবেক কাউন্সিলর ইঞ্জিনিয়ার ফরিদ আহমদ চৌধুরী, অধ্যক্ষ আল্লামা তৈয়ব আলী, আলহাজ্ব মাওলানা মুহাম্মদ ইয়াছিন, আল্লামা মুহাম্মদ হাফেজ আনিসুজ্জমান, আল্লামা আজিজুল হক হোসাইনি, আল্লামা হাফেজ আবদুল হাই, আল্লামা হাফেজ শিব্বির আহমদ ওসমানী, শাহজাদা কাযী সাজেদুর রহমান হাশেমী, লেখক আবু নাছের মুহাম্মদ তৈয়ব আলী, মাওলানা আব্দুল্লাহ আল নিশান প্রমুখ। মিলাদ কেয়াম শেষে মুসলিম উম্মাহর কল্যাণ এবং দেশ ও বিশ্ববাসীর শান্তি সমৃদ্ধি কামনায় মুনাজাত পরিচালনা করেন পীরে তরিকত আল্লামা কাযী ছাদেকুর রহমান হাশেমী (মজিআ)। বিজ্ঞপ্তি