ভারতের উদ্দেশে দেশ ছাড়লেন মাহমুদউল্লাহ-মুশফিকরা

21

গত এক সপ্তাহ ধরেই উত্তাল ক্রিকেটাঙ্গন। নানামুখী ইস্যুতে আসল কাজটাই ঠিকমতো করতে পারেনি টিম বাংলাদেশ। দেশ ছাড়ার আগের দিন দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে সফরের বিভিন্ন দিক তুলে ধরার কথা। সেটা না করে উল্টো জুয়াড়ির সঙ্গে কথোপকথনের বিষয়টি লুকিয়ে সাকিবকে নিষিদ্ধ হতে হয়েছে। তাইতো দেশ ছাড়ার আগের দিন রাতে মাহমুদউল্লাহর নেতৃত্বে নতুন করে দল ঘোষণা করতে হয়েছে বিসিবিকে।
এমন অস্থিরতাকে সঙ্গী করে বুধবার ৩টায় বাংলাদেশ বিমানে দিল্লির উদ্দেশে দেশ ছেড়েছেন মুশফিক-মাহমুদউল্লাহরা। বিমানবন্দরে প্রতিটি খেলোয়াড়ের চোখে মুখেই ছিল বিষাদের ছায়া! খুব স্বাভাবিকভাবেই সাকিবের ঘটনা সবার মধ্যে আলোড়ন তুলেছে। তবে যাওয়ার আগে আশার কথা শুনিয়ে গেছেন নতুন করে টি-টোয়েন্টির দায়িত্ব পাওয়া অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।
মঙ্গলবার দ্বিতীয় দফায় ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। সাকিবের জায়গায় তাইজুল ইসলাম, তামিমের জায়গায় মোহাম্মদ মিঠুন এবং সাইফউদ্দিনের জায়গায় দলে এসেছেন আবু হায়দার রনি।
২০০০ সালে ঘরের মাঠে স্ট্যাটাস প্রাপ্তির পর একটি টেস্ট খেললেও বাংলাদেশ প্রথম ভারত সফরে গেছে ২০১৭ সালে। সেবার হায়দরাবাদে একটি টেস্ট খেলেছিলেন সাকিব-মুশফিকরা। ভারতের মাটিতে পূর্ণাঙ্গ সফর তাই এবারই প্রথম।
৩ নভেম্বর দিল্লিতে প্রথম টি-টোয়েন্টি দিয়ে শুরু হবে সফরের আনুষ্ঠানিকতা। ৭ নভেম্বর রাজকোটে এবং ১০ নভেম্বরে নাগপুরে হবে দ্বিতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি। ২০ ওভারের লড়াই শেষে ১৪ নভেম্বর ইন্দোরে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। কলকাতায় দিবা-রাত্রির দ্বিতীয় টেস্ট শুরু ২২ নভেম্বর থেকে।
টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড:
মাহমুদউল্লাহ (অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিঠুন, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, নাঈম শেখ, মুশফিকুর রহিম, আফিফ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, আরাফাত সানি, আবু হায়দার, আল-আমিন হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, তাইজুল ইসলাম, শফিউল ইসলাম।