ব্লাড ক্যান্সার থেকে জটিল রোগের চিকিৎসায় সাফল্য

17

নিজস্ব প্রতিবেদক

ব্লাড ক্যান্সার থেকে শুরু করে জটিল রক্ত রোগের চিকিৎসা ও সফলতা এসেছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হেমাটোলজি বিভাগে। ২০০৮ সালে চালু হওয়া স্বতন্ত্র হেমাটোলজি বিভাগে ধীরে ধীরে এসেছে সফলতা। শুধুমাত্র বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট ছাড়া রক্তের অন্যান্য সেবা প্রদান হচ্ছে এ বিভাগ থেকে। যদিও এ সেবা যুক্ত করার মতো সমস্ত সুযোগ রয়েছে হাসপাতালটির। বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট সুবিধা যুক্ত হলে শতভাগ রক্তের চিকিৎসা সম্ভব চমেক হাসপাতাল থেকে।
গতকাল রবিবার চমেক হাসপাতাল প্রশাসনিক কার্যালয়ে কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত এক সেমিনারে এমন তথ্য দেয়া হয়। হেমাটোলজি বাংলাদেশ ৪৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়। ব্লাড ক্যান্সারে সুস্থ হওয়া রোগীদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন হেমাটোলজি বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ডা. মোহাম্মাদ গোলাম রব্বানী।
অধ্যাপক ডা. মোহাম্মাদ গোলাম রব্বানী বলেন, ২০০৮ সালে স্বতন্ত্র বিভাগ চালু হলেও কার্যক্রম ছিল না। প্রথমে মেডিসিন বিভাগ ও পরবর্তীতে প্যাথলজি বিভাগের সাথে কাজ করতে হয়েছে। যার কারণে রক্ত রোগের চিকিৎসা সেবা প্রদান ছিল খুবই কষ্ট কর। ধীরে ধীরে সফলতা এসেছে।ব্লাড ক্যান্সার থেকে শুরু করে জটিল রক্ত রোগের চিকিৎসা ও সফলতা এসেছে। শুধুমাত্র বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট ছাড়া রক্তের অন্যান্য সেবা প্রদান করা হচ্ছে। কেমোথেরাপী দিয়ে ৭০% রোগী সুস্থ করা সম্ভব হয়েছে। ২০২২ সাল থেকে চিকিৎসদের এমডি কোর্স চালু করা হয়েছে এবং প্রায় ৩০ জন রক্ত ক্যান্সার আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গেছেন। ১০০ ভাগ চিকিৎসা সম্ভব হবে বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট সুবিধা যদি থাকে। অবকাঠামো ও চিকিৎসার ক্ষেত্রে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল একটি স্বয়ং সম্পূর্ণ প্রতিষ্ঠাত। বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট প্রতিষ্ঠা করার মতো আমাদের এই হাসপাতালে উপযোগিতা রয়েছে।
সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন চট্টগ্রাম এর সভাপতি প্রফেসর ডা. মজিবুল হক খান। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. সাহেনা আক্তার, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন চট্টগ্রাম এর সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. ফয়সাল ইকবাল চৌধুরী, চমেক শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ডা. মো. মনোয়ারুল হক শামীম, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. হাফিজুল ইসলাম।
সেমিনারে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম এভারকেয়ার হাসপাতালের হেমাটোলজি বিভাগের অ্যাসোসিয়েট কনসালটেন্ট ডা. শামীম আরা, চমেক হাসপাতালের হেমাটোলজি বিভাগের সহকারী রেজিস্ট্রার ডা. আশেকুল ওয়াহ্হাব চৌধুরী, বক্তব্য রাখেন হেমাটোলজির রেজিস্ট্রার ডা. সৌরভ বিশ্বাস।