বিয়েটা একান্তই ব্যক্তিগত : মিথিলা

104

কলকাতার চলচ্চিত্র নির্মাতা সৃজিত মুখার্জি এবং বাংলাদেশি অভিনেত্রী ও সমাজকর্মী মিথিলা রশীদের বিয়ে নিয়ে নেট দুনিয়া যতই উত্তাল হোক না কেন, দুই তারকা এ নিয়ে কিন্তু একটা বাক্যও ব্যয় করেননি। বরং বিয়ের দিনক্ষণ নিয়ে বেশ মজার ছলেই সবটা সামলাচ্ছেন দুজনে।
আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি গাঁটছড়া বাঁধতে চলেছেন সৃজিত ও মিথিলা। কিছুদিন আগে ভারতের টাইমস অব ইন্ডিয়ার অনলাইন সংস্করণে এমন প্রতিবেদন ছাপা হয়েছিল। সৃজিতের ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে আরেকটি ভারতীয় পত্রিকা জানায়, আগামী বছর নয়, বিয়ে হবে এ বছরের ডিসেম্বরে।


এমন খবর প্রকাশ হওয়ার পর দুই বাংলা জুড়ে
গুঞ্জন শুরু হয়। এই গুঞ্জনের মাঝেই স¤প্রতি ঢাকায় আড়ং পাঞ্জাবির একটি শোরুমে সৃজিতকে দেখা যায় মিথিলার পরিবারের সঙ্গে। সেই ছবি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। বিয়ে প্রসঙ্গে সেখানে সৃজিত জানান, ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি- এই শীতের সময়টাই বিয়ের জন্য তার বিশেষ পছন্দ।
আবার ডেস্টিনেশন ওয়েডিংও হতে পারে। ভেন্যু না পাওয়া পর্যন্ত কিছুই বলতে পারছেন না বলে জানান সৃজিত। সেক্ষেত্রে বিয়ে পিছিয়ে যেতে পারে জুনে। তবে আলোচিত এ সম্পর্ক ও বিয়ের ব্যাপারে সৃজিত দুই-একটি কথা বললেও মিথিলা কিছুই বলেননি। এবার মুখ খুললেন তিনিও।
অভিনেত্রী ও সমাজকর্মী মিথিলা বর্তমানে ফেসবুকের একটি কনফারেন্সে দিল্লিতে রয়েছেন। নারী ও শিশুদের জন্য নেটদুনিয়া কতটা নিরাপদ, দিল্লিতে সে বিষয়ে একটি আলোচনা চক্রের আয়োজন করেছে ফেসবুক। সেখানে বাংলাদেশ ব্র্যাকের প্রতিনিধি হিসেবে যোগ দিয়েছেন মিথিলা।
সেখানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে অভিনেত্রী বলেন, সৃজিতের সঙ্গে তার একটা বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে। তবে সেটা তিনি সারপ্রাইজ রাখতে চান। বিয়ে হতে পারে আবার নাও হতে পারে। এরকম বক্তব্যে ধোঁয়াশা জিইয়ে রাখলেন নায়িকা।
মিথিলার কথা, ‘বিয়ে ব্যাপারটা একান্তই ব্যক্তিগত। আমি এসব নিয়ে জনসমক্ষে বলতে পছন্দ করি না। প্রত্যেকের জীবনেই প্রাইভেসি বলে একটা ব্যাপার রয়েছে। একান্ত জানাতে হলে তা আত্মীয় এবং পরিবারের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে। বাইরে বলার কোনো প্রয়োজন দেখি না।’