বিশ্বকে পোলিওমুক্ত করার ক্ষেত্রে রোটারি অগ্রণী ভূমিকা পালন করে

6

রোটারি ক্লাব অব চিটাগং সেন্ট্রালের ৯ম অভিষেক গত ৯ অক্টোবর নগরীর ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউট সেমিনার হলে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রোটা. মীর নাজমুল আহসান রবিন।
অনুষ্ঠানের চেয়ারম্যান সদ্য অতীত সভাপতি রোটা. আব্দুর রাজ্জাক ২০২১-২২ রোটাবর্ষের সভাপতি রোটা. সাইফুল আলম শিমুলকে কলার স্থানান্তর করেন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন রোটারি জেলা গভর্নর আবু ফয়েজ খান চৌধুরী, বিশেষ অতিথি ছিলেন পিডিজি প্রফেসর মোঃ তৈয়ব চৌধুরী, পিডিজি দিল নাশীন মহসিন, পিডিজি আতাউর রহমান পীর, গর্ভনর নমিনী ইঞ্জিনিয়ার মতিউর রহমান। সংবর্ধিত অতিথি ছিলেন এ্যডিশনাল ডি. আই. জি মোহাম্মদ মুসলিম উদ্দিন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সংস্কৃত বিভাগের চেয়ারম্যান অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর ড. শিপক কৃষ্ণ দেব নাথ, ওমানে বাংলাদেশী শিল্প উদ্দ্যোক্তা মো. সাহাব উদ্দিন, উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ মনজুর মোরশেদ এবং সাংবাদিক এসএম রানা। বক্তারা বলেন, রোটারি জন্মলগ্ন থেকেই মানবতার মহান ব্রতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। বিশ্বকে পোলিও মুক্ত করার ক্ষেত্রে রোটারি অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে এবং রোটারী ক্লাব অব চিটাগং সেন্ট্রালের উদ্দ্যোগে “গ্রো উইথ কভিড-১৯” প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং উক্ত কাজের ধারাবাহিকতা রক্ষা করার অনুরোধ করেন। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ক্লাবের অতীত সভাপতি রোটা. নাছির উদ্দিন, রোটা. জাহাঙ্গীর আলম জীম, রোটা. এস. এ. সাহেদ, নির্বাচিত সভাপতি রোটা. তাজ উদ্দিন, সহ-সভাপতি রোটা. ডা. মোহাম্মদ মূসা, রোটা. জামিল হানিফ, ক্লাব সচিব রোটা. শামসুন্নাহার।
২০২০-২১ রোটারী বর্ষের সেরা রোটারিয়ান হিসেবে রোটা. মেজর জেনারেল আব্দুল মতিনকে পিডিজ কমরেড এম এম রহমান পদকে ভূষিত করা হয়। ২০২০-২১ রোটা. বর্ষের প্রমিজিং রোটারিয়ান হিসেবে রোটারিয়ান মো. মিজবাহ উদ্দিনকে পুরষ্কৃত করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন রোটা. ড. মঈনুল ইসলাম মাহমুদ, রোটা. এসকে আজিম পিন্টু, রোটা. হাসিনা আকতার লিপি, রোটা. ফারজানা হাকিম চৌধুরী, রোটা. আবুল হাসান, রোটা. ইফতেখার রবি, রোটা. জুবায়দা গুলশান, রোটা. মুহছেনা খাতুন, স্পন্সরিং রোটার‌্যাক্ট ক্লাবের রোটার‌্যাক্টর রাশেদুল ইসলাম, রোটার‌্যাক্টর ইভান পাল, রোটার‌্যাক্টর শিহাবুজ্জামান, রোটার‌্যাক্টর ইরামুল আহমেদ নীলয় প্রমুখ।