বিশ্বকে দুর্ভিক্ষের ঝুঁকিতে ফেলছে রাশিয়া : ইইউ

4

 

রাশিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বকে দুর্ভিক্ষের ঝুঁকিতে ফেলার অভিযোগ করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। শনিবার ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক প্রধান জোসেফ বোরেল এই অভিযোগ করেছেন। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ফরাসি সংবাদমাধ্যম ফ্রান্স ২৪। জোসেফ বোরেল বলেন, ইউক্রেনের খাদ্যশস্য পরিবহন ও রফতানিতে বিধিনিষেধ আরোপের মাধ্যমে বিশ্বকে দুর্ভিক্ষের ঝুঁকিতে ফেলছে রাশিয়া। সোমবার লুক্সেমবার্গে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পর-রাষ্ট্রমন্ত্রীদের আলো চনায় খাদ্য নিরাপত্তার হুমকি এবং ইউক্রেন ইস্যুতে মস্কোর ওপর আরোপিত পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা নিয়ে আলোচনার কথা রয়েছে। নিজের অফিসিয়াল ব্লগে প্রকাশিত এক নিবন্ধে জোসেফ বোরেল বলেন, ‘দুনিয়াজুড়ে খাদ্য নিরাপত্তার ওপর যে কোনও অবাঞ্ছিত প্রভাব মোকাবিলায় জাতিসংঘ এবং আমাদের অংশীদারদের সঙ্গে কাজ করতে আমরা প্রস্তুত।’
এদিকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, রুশবিরোধী নিষেধাজ্ঞা তাদেরই বেশি ক্ষতি করবে যারা (পশ্চিমা বিশ্ব) এটি আরোপ করেছে। আর রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞার কারণে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ৪০০ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি মূল্যের ক্ষতি হতে পারে। ইউক্রেন যুদ্ধের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়ন তার রাজনৈতিক সার্বভৌমত্ব হারিয়েছে বলেও দাবি করেন পুতিন। তিনি বলেন, ইউরোপের দেশগুলোতে মুদ্রাস্ফীতি বাড়ছে এবং নিষেধাজ্ঞার ফলে দেশগুলোতে বৈষম্য আরও বাড়বে। উল্লেখ্য, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নির্দেশে ইউক্রেনে কথিত বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। এই অভিযানকে অবৈধ অ্যাখা দিয়ে পুতিন ও তার ঘনিষ্ঠজনদের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়ে আসছে যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলো। গত ১৪ জুন প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে রুশ প্রেসিডেন্টের দফতর ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ স্বীকার করেছেন, পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞার ধকল কাটানো সহজ নয়। তিনি বলেন, পশ্চিমাদের যেসব পদক্ষেপ রাশিয়ার অর্থনীতিকে বৈশ্বিক আর্থিক ব্যবস্থা থেকে বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে সেগুলো ছিল কঠিন। তবে তাদের এসব পদক্ষেপ মস্কোকে ‘বন্ধুত্বপূর্ণ’ দেশগুলোর দিকে আরও ঠেলে দিচ্ছে।