বিজিসি ট্রাস্ট ভার্সিটির আইন বিভাগে প্রশিক্ষণ কর্মশালা

8

 

বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ এর আইন বিভাগের উদ্যোগে Trial Advocacy and Litigation Skil শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আসমা আল আমিনের সভাপতিত্বে ১৮ মে আইকিউএসি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ এর উপাচার্য প্রফেসর ড. এএফএম আওরঙ্গজেব, বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের ডীন ও বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ এর আইন বিভাগের উপদেষ্টা প্রফেসর এবিএম আবু নোমান, মুখ্য আলোচক ছিলেন কক্সবাজারের চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আলমগীর মুহাম্মদ ফারুকী, বক্তব্য দেন আইন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক নাজনীন আক্তার। প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. এএফএম আওরঙ্গজেব বলেন, আইন হচ্ছে একটি দেশের মূল চালিকা শক্তি। আইনের মাধ্যমে রাষ্ট্র এবং জনগণ পরিচালিত হয়। আইনের সেবক হচ্ছে আইনজীবী তথা আইন বিশারদরা। আইনের সেবক হিসেবে জনগণকে সেবা দিতে হলে আইন সম্বন্ধে অনেক বেশি জানতে হবে। আশা করবো, বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটির আইনের ছাত্র-ছাত্রীরা নিজেদের আইন পেশায় নিয়োজিত করে দেশ ও জনগণের সেবা করতে নিজেদের নিয়োজিত করবেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর এবিএম আবু নোমান বলেন, আমরা চাই আইন বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীরা একজন দক্ষ আইনজীবী হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলুক। সেই লক্ষ্যে বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটি সবসময় বিষয়ভিত্তিক সেমিনার, সিম্পোজিয়াম এবং ট্রেনিং এর আয়োজন করে থাকে। এই প্রশিক্ষণ কর্মশালার মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীরা ভবিষ্যতে নিজেকে একজন দক্ষ আইনজ্ঞ হিসেবে গড়ে তোলার প্রেরণা পাবে এবং দেশের জনগণের জন্য একজন মানবিক আইনজীবী হিসেবে গড়ে তুলতে পারবে।
মুখ্য আলোচক আলমগীর মুহাম্মদ ফারুকী বলেন, একজন আইনজীবীর আইনের ধারা এবং রেফারেন্স সঠিক উপস্থাপন একজন বিচারকের রায় প্রদানের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আমরা বর্তমান সময়ে দেখি অনেক আইনজীবী বিচারিক আদালতে তার মামলার কাগজপত্রসমূহ সঠিকভাবে প্রদান এবং যুক্তি উপস্থাপনে অজ্ঞতার জন্য বিচারিক কার্যক্রমে দীর্ঘসূত্রিতা হয়। বিচারিক কার্যক্রমে গুরুত্বপূর্ণ নথি উপস্থাপনের জন্য নিজেদের অনেক বেশি দক্ষ হতে হবে। আইন বিভাগের প্রভাষক সিদরাতুল মুনতাহা তৃনার সঞ্চালনায় প্রশিক্ষণ কর্মশালায় আইন বিভাগের অন্যান্য শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীরা উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি