বিক্ষোভরত কৃষকের মৃত্যু পুলিশি ব্যারিকেড ভেঙে রেড ফোর্টে দিল্লির কৃষকেরা

9

পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ, টিয়ার গ্যাস আর মোড়ে মোড়ে বসানো কাঁটাতারের ব্যারিকেড ভেঙে দিল্লির ঐতিহাসিক রেড ফোর্টে পৌঁছে গেছে ভারতের আন্দোলনরত কৃষকেরা। ভেতরে প্রবেশের দূর্গের চূড়ায় উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে কৃষক আন্দোলনের পতাকা। পূর্ব ঘোষিত ট্রাক্টর র‌্যালি নিয়ে কৃষকেরা মঙ্গলবার দিল্লি অভিমুখে রওনা দিলে তাদের ঠেকাতে মরিয়া হয়ে ওঠে পুলিশ। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। ভারতের নতুন প্রবর্তিত কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে দিল্লি সীমান্তে গত দুই মাস ধরে অবস্থান নিয়ে আন্দোলন করে আসছে কৃষকেরা। দিল্লির প্রবল ঠান্ডার মাঝে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়া কৃষকদের সঙ্গে ভারত সরকারের ১১ বার বৈঠক হলেও সেখানে আইন প্রত্যাহার নয়, স্থগিত রাখার প্রস্তাবই দেওয়া হয়েছে। তবে তা মেনে নিতে অস্বীকার করে আসা কৃষকেরা প্রজাতন্ত্র দিবসে ট্রাক্টর র‌্যালির কর্মসূচি ঘোষণা করে। দিল্লি পুলিশের তরফে জানানো হয়েছিল, মঙ্গলবার দুপুর নাগাদ কৃষকেরা মিছিল নিয়ে তিনটি নির্দিষ্ট রুট ঘুরে আবারও শুরুর স্থানে ফিরে আসবে। তবে পুলিশের ওই ঘোষণা মানেনি কৃষকেরা। সকাল থেকে নিজেদের অবস্থান ছেড়ে দিল্লির দিকে ছুটতে থাকে তারা। পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে কৃষকেরা এগুতে থাকলে দিল্লির নয়ডা মোড়, আইটিও মোড়, এসবিটি এলাকায় কৃষকদের সঙ্গে পুলিশে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
এদিকে ভারতের রাজধানী দিল্লিতে পুলিশের গুলিতে এক কৃষকের মৃত্যুর অভিযোগ তুলেছে তার সঙ্গে থাকা অন্য কৃষকেরা। তবে পুলিশের দাবি, আইটিও মোড়ের কাছে একটি দ্রæতগামী ট্রাক্টর উল্টে গেলে তার মৃত্যু হয়। কিন্তু এই দাবি প্রত্যাখ্যান করে ঘটনাস্থল দীনদয়াল উপাধ্যায় মার্গের কাছে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেছেন কৃষকেরা। সম্প্রচার মাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ, টিয়ার গ্যাস আর মোড়ে মোড়ে বসানো কাঁটাতারের ব্যারিকেড ভেঙে দিল্লির ঐতিহাসিক রেড ফোর্টে পৌঁছে গেছে ভারতের আন্দোলনরত কৃষকেরা। ভেতরে প্রবেশের দূর্গের চূড়ায় উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে কৃষক আন্দোলনের পতাকা।