বান্দরবানে প্রতারণার দায়ে ৩ যুবক আটক

104

বান্দরবানে যুবকদের লোভ দেখিয়ে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তিন যুবককে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় বান্দরবান বাজার থেকে এই তিন যুবককে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন, কাউছার আহম্মেদ, নয়ন রুদ্র ও মইনুল ইসলাম।
পুলিশ জানায়, বান্দরবানে একটি চক্র কিছু যুবককে লোভ দেখিয়ে টাকা দ্বিগুণ হওয়া, চাকরি করে বড়লোক হওয়া আর বিদেশ ভ্রমণসহ নানা রকম প্রলোভন দেখিয়ে জেলা সদরের বিভিন্ন স্কুল কলেজে পড়ুয়া ছাত্রদের টার্গেট করে ‘টিয়েন্স গ্রুপ’ নামে একটি অনলাইন প্রোডাক্ট গ্রুপ টাকা সংগ্রহ শুরু করে। এই ‘টিয়েন্স গ্রুপ’ লিডার মো. কাউছার আহম্মেদ কুমিল্লায় বসবাস করে বান্দরবানের ডিলারশিপ কিনে নেয়। পরবর্তীতে এই মো. কাউছার আহম্মেদ বিভিন্ন ছল ছাতুরী করে জেলা সদরের বিভিন্ন স্কুল কলেজে পড়ুয়া ছাত্রদের চাকরি দেওয়ার কথা বলে জনপ্রতি ৩ হাজার ৩০ টাকা আদায় করে।
পুলিশ আরো জানায়, টিয়েন্স গ্রুপের বান্দরবানের ডিলারশিপ লিডার মো. কাউছার আহম্মেদ গ্রুপে যোগদানের সময় যে প্রতিশ্রুতি প্রদান করেছিল যোগদানের পর তা আর ঠিক রাখতে পারে নি।
ক্ষতিগ্রস্ত টিয়েন্স গ্রুপ সদস্য বান্দরবান সরকারি কলেজের ছাত্র মো. এরশাদ জানান, টিয়েন্স গ্রুপ আমার কাছ থেকে টাকা সংগ্রহ করার পর ভালো চাকরি দেওয়া, বিদেশ ভ্রমণ করাসহ নানারকম লোভ দেখায়। তাছাড়া আমার লাভের কোন টাকা না দিয়ে উল্টো আমাকে আরো বেশি লোক গ্রুপে ভর্তি করার জন্য চাপ প্রয়োগ করে তারা। এতে আমার এই প্রতিষ্ঠান নিয়ে সন্দেহ হয়। আর তাই আমি বাধ্য হয়ে বান্দরবান সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করি।
বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম চৌধুরী জানান, ২-৩ মাস ধরে এই টিয়েন্স গ্রুপ বান্দরবানে কাজ শুরু করে। সর্বশেষ কয়েকজন ভুক্তভোগীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে সোমবার সন্ধ্যায় বান্দরবান বাজার থেকে ওই গ্রুপের তিন যুবককে আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।