বান্দরবানে জলকেলি উৎসবে মেতে উঠলো পাহাড়ি তরুণ-তরুণীরা

10

বান্দরবান প্রতিনিধি

মারমা সম্প্রদায়ের প্রধান সামাজিক উৎসব সাংগ্রাই। এ সাংগ্রাই উসৎবের প্রধান আকর্ষণ জলকেলি। করোনায় গত দুইবছর বন্ধ থাকার পর এবার বান্দরবানে জলকেলি উৎসবে মেতে উঠে মারমা শিশু-কিশোর ও তরুণ-তরুণীরা। সাংগ্রাই উৎসবে পানি খেলার মাধ্যমে পুরনো বছরের সকল দুঃখ-কষ্ট, গ্লানি ধুয়ে-মুছে নতুন বছরকে বরণ করে মারমা সম্প্রদায়। এখন এই উৎসব শুধু মারমা সম্প্রদায়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়, এটি এখন সার্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে।
গতকাল শুক্রুবার বান্দরবানের পুরো জেলা শহরজুড়ে চলছে এই জলকেলি খেলা। শিশু থেকে শুরু করে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের তরুণ-তরুণী এমনকি বয়স্করাও একে অপরের গায়ে পানি ঢেলে নতুন বছরকে বরণ করে নেয়। উৎসবে দেশি-বিদেশি অসংখ্য পর্যটকের সমাগম ঘটে। আনন্দ উদ্দীপনা আর সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যে বর্ণিল হয়ে উঠে বান্দরবান শহর। বিকালে শহরের উজানী পাড়াস্থ সাঙ্গু নদীর তীরে জলকেলিতে অংশ নেওয়া তরুণ-তরুণীদের একে অপরের গায়ে পানি ঢেলে মৈত্রী পানিবর্ষণ প্রতিযোগিতায় মেতে উঠেন। শুরুতে কয়েকটি ভাগে বিভক্ত হয়ে পানি খেলায় মেতে ওঠেন মারমা তরুণ-তরুণীরা। পানি খেলার পাশাপাশি আয়োজন করা হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। এতে অংশ নেন পাহাড়ি শিল্পীরা। মারমা শিল্পীগোষ্ঠী ছাড়াও পাহাড়ের নবীন-প্রবীণ শিল্পীদের পরিবেশনা মুগ্ধ করে দর্শক-শ্রোতাদের।
এসময় উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, পার্বত্য পরিষদের সদস্য ক্যসাপ্রুসহ প্রশাসনের কর্মকর্তরা।