বাকলিয়ায় জমি দখলে চাঁদা দাবির অভিযোগ

25

নিজস্ব প্রতিবেদক

নগরীর অপরাধপ্রবণ বাকলিয়ার রাজাখালী এলাকায় জমি দখলের অসৎ উদ্দেশ্যে দুই ভূমি মালিকের কাছে ২০ লাখ চাঁদা দাবির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী হাজী জহুরুল আলম অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে অভিযোগ দাখিল করেছেন। চাঁদা না পেয়ে ভূমির সীমানা প্রাচীর ভাঙচুর করা হয়েছে বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।
বাকলিয়া মৌজার রাজাখালী এলাকার ভুক্তভোগী ভূমি মালিক হাজী জহুরুল আলম ও জানে আলম জানান, ক্রয় সূত্রে আমরা ওই মৌজার বিএস ৬৬৫৯ ও ৬৬৬৪ দাগে পাশাপাশি দুটি প্লটের মালিক হই। স্থানীয় নজরুল ইসলাম ও তার দলবল আমাদের কাছে ২০ লাখ চাঁদা দাবি করেন। চাঁদা না পেয়ে তারা দলবল নিয়ে কয়েক দফায় হামলা চালিয়ে আমাদের ওই ভূমির সীমানা প্রাচীরসহ অন্যান্য স্থাপনা ভাঙচুর করে। সর্বশেষ গত ২৪ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতেও সীমানা প্রাচীর ভাঙচুর করা হয়। এ বিষয়ে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে অভিযোগ দায়ের করলে আদালত ১৪৫ ধারায় প্রতিবেদন দাখিল ও শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য বাকলিয়া থানা পুলিশকে নির্দেশ প্রদান করে। এরপরও নানা মাধ্যমে হুমকি ও চাঁদা দাবি অব্যাহত রয়েছে। এ ব্যাপারে সিএমপি কমিশনার বরাবরেও আমরা অভিযোগ দিয়েছি।
তবে অভিযুক্ত নজরুল ইসলাম চাঁদা দাবি ও হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, অন্যায়ভাবে প্রশাসনের সুবিধা পাওয়ার কৌশল হিসেবে প্রতিপক্ষ তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করছে।