বাংলাদেশ আর্টিস্ট গ্রুপের আয়োজনে গ্লোবাল ফ্রেন্ডশিপ আর্ট ফেস্টিভ্যাল ইন্ডিয়া ২০২৩ উদ্বোধন

86

পূর্বদেশ অনলাইন
বাংলাদেশ ভারতসহ ১২ দেশের চিত্র শিল্পীদের শিল্পকর্ম নিয়ে গ্লোবাল ফ্রেন্ডশিপ আর্ট ফেস্টিভ্যাল ইন্ডিয়া ২০২৩ আজ ৯ জানুয়ারি বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবনের নন্দন চিত্রশালায় উদ্বোধন হয়েছে। ৫ দিন ব্যাপি এই ফেস্টিভ্যালের উদ্বোধন করেন কোলকাতায় বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশনার জনাব আন্দালিব ইলিয়াস। প্রধান অতিথি ডেপুটি হাইকমিশনার আন্দালিব ইলিয়াস তাঁর বক্তৃতায় বলেন, শিল্প সংস্কৃতির উৎসব, চিত্র প্রদর্শনী, এবং সৃজনশীলতার যেকোনো মাধ্যম বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বিদ্যমান বন্ধুত্বের বন্ধনকে আরো জোরদার করার একটি অন্যতম প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করবে। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের জনগণের অদম্য, শান্তিপূর্ণ ও অসাম্প্রদায়িক চেতনার চিত্র উঠে এসেছে এ আয়োজনে। পাশাপাশি এই প্রদর্শনী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুকরণীয় নেতৃত্ব ও সাম্প্রতিক বছরগুলিতে শিল্প ও সংস্কৃতিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশের ব্যাপক অগ্রগতির বার্তা ছড়িয়ে দিতে সাহায্য করবে।উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় কলাভবনের প্রাক্তন অধ্যক্ষ উপমহাদেশের স্বনামধন্য ভাস্কর শিল্পী ড. ঝংকার নার্জারী, বাংলাদেশের স্বনামধন্য শিল্পী কে এম এ কাইয়ুম, শিল্পী নাসিমা মাসুদ রুবি। বাংলাদেশ আর্টিস্ট গ্রুপের সভাপতি শিল্পী সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে বর্ণাঢ্য এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দুই বাংলার শিল্পী-শিক্ষার্থী ও শিল্পানুরাগী দর্শক উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ অতিথিরা বলেন, বন্ধুত্ব ও মানবতার বার্তা নিয়ে বিশ্বের সকল শিল্পীরা কাজ করে যাবে। সকল অসুন্দরকে পরাজিত করে সুন্দরের জয়ধ্বনি হবে। গ্লোবাল ফ্রেন্ডশিপ আর্ট ফেস্টিভ্যাল ইন্ডিয়াতে বাংলাদেশ আর্টিস্ট গ্রুপের উপদেষ্টা জনাব সৈয়দ আশরাফুজ্জামান, জনাব মোহাম্মদ আক্তার হোসেন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও আর্টিস্ট গ্রুপের ভারত প্রতিনিধি সন্দ্বীপ ভট্টাচার্য, বাংলাদেশের শিল্পী মোহাম্মদ রফিক, শামিমা আক্তার জেসমিন, অনিন্দ্য দাশ, মোজাহিদুল ইসলাম, ভারতীয় শিল্পী সোমা মাঝি, অর্পিতা কর, সন্তু সরকার, জয়িতা সাহা, জয়দ্বীপ ভট্টাচার্য, জয়া বরো, সুশোভন অধিকারী, দিপিকা সাহা, তন্দ্রা ভদ্র, মনিকা দেবী, অনিতা ভট্টাচার্য, স্বপন পাল, অদিতি চক্রবর্তী প্রমুখ। উক্ত ফেস্টিভ্যালে বাংলাদেশ ভারত ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, চীন, ফ্রান্স, গ্রীস, জাপান, থাইল্যান্ড, লাটভিয়া, নাইজেরিয়া, মন্টেনেগোর চিত্র শিল্পীরা অংশ নিয়েছে। প্রদর্শনীতে দেশী-বিদেশী ৬২জন শিল্পীর ১০৪টি চিত্রকর্ম ও ১২টি ভাস্কর্য প্রদর্শিত হচ্ছে। প্রদর্শনী আগামী ১৩ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত সকল দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।