বর্ষণ-পাহাড়ি ঢল মিরসরাইয়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

58

মিরসরাইয়ে টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে প্লাবিত হয়েছে নিম্নাঞ্চল। অতিবৃষ্টির কারণে বিভিন্ন স্থানে হেলে পড়েছে গাছপালা। মাটি নরম হয়ে গাছের শিকড় মাটি থেকে আলাদা হয়ে যাচ্ছে। ক্ষতি হয়েছে আমন বীজতলার। ক্ষেত-খামারে কাজ করা সাধারণ মানুষগুলো অলস সময় পার করছেন। অনেকে গবাদি পশু নিয়ে পড়েছেন বিপাকে।
দেখো গেছে, উপজেলার করেরহাট, হিগুলী, জোরারগঞ্জ, কাটাছরা, মিঠানালা, মিরসরাই সদর, খৈয়াছড়া, ওয়াহেদপুর, ওসমানপুর, আবুতোরাবসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে পাহাড়ি ঢল ও প্রবল বর্ষণে নিম্নাঞ্চল ডুবে গেছে। এতে বেড়েছে জনদুর্ভোগ।
মিরসরাই পৌরসভার ফেনাপুনি এলাকার সাইফুল্লাহ জানান, ভারি বষর্ণে ও পাহাড়ি ঢলে ফেনাপুনি ও খৈয়াছড়া এলাকায় পানি বেড়ে গেছে। ফলে বেশ কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। তবে কোথাও কোন ঘর বাড়ি ক্ষতি হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।
হিঙ্গুলী ইউনিয়নের মধ্যম আজম নগর এলাকার এক বাসিন্দা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, ফেনী নদী থেকে অবৈধভাবে ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন করে আজম নগর রেললাইনের পাশে যে খালটি পানি নিষ্কাশনের জন্য ছিল, তা বালু মহলের বালু উত্তোলনের কারণে ভরাট হয়ে গেছে। ফলে মধ্যম আজম নগর, দক্ষিণ আজম নগর ও চিনকিহাট গ্রাম প্ল­াবিত হয়েছে।
উপজেলার কৃষি সুপারভাইজার কাজী নুরুল আলম জানান, ভারি বর্ষণে বীজতলা নষ্ট হয়ে গেছে। তবে শাক-সবজির ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।
উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী জানান, ভারি বৃষ্টিতে এখনও কোন মৎস্য খামারে ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। তবে বৃষ্টি যদি এভাবে অব্যাহত থাকে, তাহলে অনেক মৎস্য খামার ডুবে ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে।