ফয়’স লেক-বারইয়ারহাট অপূর্ব সৌন্দয্যের ভূপ্রকৃতি রক্ষা করুন

8

 

চট্টগ্রামের ভূপ্রকৃতি রক্ষায় জেলা প্রশাসনের নানামুখী পদক্ষেপে অভিনন্দন জানিয়ে এ লড়াইয়ে সকলকে সামিল হওয়ার আহবান জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন। সম্প্রতি এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি এ আহবান জানান। তিনি বলেন, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যরে অপরূপ লীলাভূমি আমাদের এই চট্টগ্রাম। কিন্তু দুঃখ এবং পরিতাপের বিষয় এই যে বেশ কয়েক বছর যাবত টিলা, পাহাড়সহ ভূপ্রকৃতি ধ্বংসে মেতে উঠেছে এক শ্রেণীর অর্থলিপ্সু প্রভাবশালী গোষ্ঠী।
বিভিন্ন আবাসিক, বাণিজ্যিক শিল্প স্থাপনা, কলকারখানা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ নানাবিধ প্রতিষ্ঠানের নামে টিলা, পাহাড় কাটার উৎসবে মেতে উঠেছে চক্রটি। রাতের আধারে তো বটে এমনকি প্রকাশ্য দিবালোকেও পাহাড় কাটার ঘটনা ঘটছে অহরহ। এসব পাহাড় খেকোদের বিরুদ্ধে মুর্তিমান আতংক রূপে হাজির হয়েছেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান। ইতোমধ্যে চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডের জঙ্গল সলিমপুর ও আলীনগরে অভিযান চালিয়ে শত শত একর সরকারি খাস জমি উদ্ধার করা হয়েছে। এসব বিশাল সরকারি খাস জমি ঘিরে নানামুখী উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে বর্তমান সরকার। তাই চট্টগ্রামের ভূপ্রকৃতি রক্ষায় চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসনের সাহসী পদক্ষেপে সকলকে সামিল হওয়ার অনুরোধ জানান তিনি। পাহাড়তলী ফয়েসলেক থেকে বারৈয়ারহাট পর্যন্ত আমাদের অপূর্ব সৌন্দর্যমন্ডিত যে ভূপ্রকৃতি রয়েছে সেটিকে রক্ষার জন্য আরএস, বিএস জরিপ অনুযায়ী একটি সমন্বিত টেকসই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে সেটিকে কার্যকরভাবে কার্যকর করার জন্য জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি। বর্তমান জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় পরিবেশ অধিদপ্তরের যে প্রশংসনীয় তৎপরতা সেটাকে আরো বেগবান করারও আহবান জানান তিনি। এসব ভূমি উদ্ধার করে সংরক্ষণের পাশাপাশি একটি বৃহৎ প্রাকৃতিক বিনোদন কেন্দ্র গড়ে তোলার অনুরোধ জানান খোরশেদ আলম সুজন। বিজ্ঞপ্তি