ফারমার্স ব্যাংকের নাম বদলে পদ্মা

53

কেলেঙ্কারি থেকে বেরিয়ে ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যে নাম পরিবর্তন করেছে ফারমার্স ব্যাংক। এর নতুন নাম হয়েছে পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড। গতকাল বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংক বেসরকারি এই ব্যাংকটির নতুন নামের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে।
শত শত কোটি টাকা অনিয়মের পর ফারমার্স ব্যাংকে পর্যবেক্ষক নিয়োগ, ঋণ কেলেঙ্কারিসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে সমালোচিত ফারমার্স ব্যাংকের নাম পরিবর্তন করে ‘পদ্মা ব্যাংক’ করার অনুমতি চেয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে আবেদন করেছিল বর্তমান পরিচালনা পর্ষদ। খবর বিডিনিউজের
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে জারি করা ‘দি ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেড’ এর নাম পরিবর্তন করে ‘পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড নামকরণ’ শীর্ষক এক সার্কুলারে বলা হয়েছে, ২০১৯ সালের ২৯ জানুয়ারি মঙ্গলবার হতে তফসিলি ব্যাংকসমূহের তালিকায় ‘দি ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেড’ এর নাম ‘পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড’ হিসেবে পরিবর্তন করা হয়েছে। সার্কুলারটি সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়েছে।
২০১৩ সালে ব্যাংকটির যাত্রা শুরু হয়। যাত্রার তিন বছরেই ধুঁকতে থাকা ফারমার্স ব্যাংকে ব্যাপক অনিয়মের জন্য ব্যাংকটির প্রতিষ্ঠাতাদের দায়ী করেছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। চাপের মুখে গত বছরের শুরুতে চেয়ারম্যান পদ ছাড়তে হয় ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মহীউদ্দীন খান আলমগীরকে। ২০১৬ সালে শত শত কোটি টাকা অনিয়ম দেখে ফারমার্স ব্যাংকে পর্যবেক্ষক নিয়োগ দিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক।
ঋণ কেলেঙ্কারিসহ নানা অনিয়মের কারণে ২০১৮ সালের প্রথম দিকে সরকারের হস্তক্ষেপে ডুবতে থাকা ফারমার্স ব্যাংকটির ৬০ শতাংশের বেশি শেয়ার রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী, অগ্রণী, জনতা, রূপালী এবং আইসিবি কিনে নয়।