প্রফেসর অর্ধেন্দু বিকাশ রুদ্র স্যারের মৃত্যুতে শ্রদ্ধাঞ্জলি

16

 

অদম্য উচ্ছ্বাস, ভালোবাসায় ও প্রীতিময় সম্ভাষণে আপনি আমাদের পাঠদান করেছেন। চর্যাপদের সমাজের সাথে পরিচয় করার পর নিয়ে গেলেন শ্রীকৃষ্ণ কীর্ত্তনে, কেন জানি বড়াই চরিত্রটি আপনার খুব প্রিয় ছিল। সাহিত্যের রস আস্বাদনে রামায়ণের কথা, বাল্মীকির পরিচয় তুলে ধরতে গিয়ে আপনি থরোথরো আবেগে কেঁপে উঠতেন। শিক্ষার্থীর প্রতি আপনার ভালোবাসা ছিল অগাধ। ক্রৌঞ্চের কথা, নিষাদের বর্ণনায় আপনি ইতিহাসের নায়ক হয়ে আবির্ভূত হতেন। রাধার ক্রমবিকাশ পড়াতে গিয়ে বারবার কৃষ্ণের বাঁশির রাগ শুনিয়ে যেতেন। মেঘনাদবধ কাব্যের রাবণকে আপনি খুব ভালোবাসতেন তাঁর দেশপ্রেম দেখে। অথচ রামায়ণের রাবণ ছিল আপনার দৃষ্টিতে ইতিহাসের ভিলেন। প্রাচীন ও মধ্যযুগের পুরো পর্বে আপনি ছিলেন একমাত্র ত্রাতা। আধুনিক বাংলা সাহিত্য ছিল আপনার নখদর্পণে, সনাতন ধর্মের গুরু ছিলেন আপনি। যেকোনো সভায় আপনার পান্ডিত্যপূর্ণ বক্তব্য দর্শকদের মুগ্ধ করতো।
আপনি আমাদের মাঝে থাকবেন চিরদিনের সাথী ও আলোকমশাল হয়ে। সিরাজদৌল্লাহ স্যার ভালোবেসে বলতেন – ‘হে রুদ্র, তুমি নহ ক্ষুদ্র’ – আপনি আসলে তাই।
শুভ বিদায়, চিরশান্তিতে থাকুন – চিরনিদ্রায়।