প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য সহায়তা প্রদানকালে মেয়র করোনাকালে মাস্ক পরিধান অপরিহার্য

13

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, করোনাকালে পোশাক পরিচ্ছদের পাশাপাশি মাস্ক পরিধানও অপরিহার্য। বর্তমানে কোভিডের যে ঊর্ধ্বগমন, তার জন্য আমাদের নাগরিক অসচেতনতা অনেকাংশে দায়ি। ২৭ জুলাইও সারাদেশে ১৪ হাজার ৯৭৫ জন আক্রান্ত ও ২৫৮ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এর মধ্যে চট্টগ্রাম শহরেই মৃত্যুবরণ করেছে ৯ জন। কাজেই কঠোর বিধিনিষেধ মেনে চলার বিকল্প কোন পথ নাই। না হয় আমাদের বড় ধরনের মাশুল দিতে হবে।
তিনি বুধবার সকালে আন্দরকিল্লাস্থ পুরতান নগর ভবন চত্বরে বিভিন্ন মার্কেটের ১৫০জন শ্রমিক ও টাইগারপাসস্থ চসিকের অস্থায়ী কার্যালয়ে ১শ প্রতিবন্ধীর মাঝে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া খাদ্য সহায়তা প্রদানকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। খাদ্য সহায়তা প্রদানকালে প্যানেল মেয়র মো. গিয়াসউদ্দিন, অধ্যাপক ড. মো.মাসুম, মেয়রের একান্ত সচিব মুহাম্মদ আবুল হাশেম, নির্বাহী প্রকৌশলী মীর্জা ফজলুল কাদের, সেন্টার ফর ডিজেবল কনসার্ন (সিডিসি) এর নির্বাহী পরিচালক লুৎফুন্নেছা রূপসা, উম্মে হাবিবা আঁখি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
মেয়র আরো বলেন, বর্তমানে ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাবও পরিলক্ষিত হচ্ছে। যে কারণে আমরা প্যানেল মেয়র মো. গিয়াসউদ্দিনের নেতৃত্বে ৬ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছি। তাদের তত্ত্বাবধানে ৪১টি ওয়ার্ডে ৩০ থেকে ৪০ জন স্বেচ্ছাসেবক ২৯ জুলাই থেকে নগরবাসীকে সচেতন করতে মাঠে কাজ করবে। ইতোমধ্যে নগরীতে সাড়ে ৪ লাখ মানুষকে কোভিডের টিকাও প্রদান করা হয়েছে, যা এখনো চলমান আছে। কাজেই করোনা মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক পরিধান করুন ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে নিজ বাড়ির আঙ্গিনা, আশপাশ, রেফ্রিজারেটরের ট্রে, ফুলের টবে জমে থাকা পানি পরিস্কার রাখতে হবে। কারণ ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃদ্ধি পায় স্বচ্ছ পানিতে এডিস মশার বংশ বিস্তারের মাধ্যমে। তিনি শিঘ্রই নগরে মশা নিধনে এডাল্টিসাইট (কালো তেল) ছিটানোর পাশাপাশি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কীটতত্ত্ববিদের প্রতিবেদন পেলে ফগার মেশিনের সাহায্যে ওষুধ স্প্রে করা হবে বলে উল্লেখ করেন। মেয়র সম্মিলিত প্রয়াসে এই সংকটকাল উত্তরণে সবার সহযোগিতা কামনা করেন। এছাড়াও কোভিড পজেটিভ হলে প্রয়োজনে লালদিঘীর পাড়স্থ কর্পোরেশন স্থাপিত আইসোলেশান সেন্টার থেকে ফ্রি চিকিৎসাসেবা গ্রহনের আহ্বান জানান। বিজ্ঞপ্তি