প্রকল্পের সঠিক বাস্তবায়নে নজর দিতে হবে : পার্বত্যমন্ত্রী

8

 

পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে মৎস্য সম্পদ উন্নয়নের লক্ষে ষ্টেকহোল্ডার ক্যম্পেইন বিষয়ক এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চল মৎস্য সম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের আয়োজনে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ ও জেলা মৎস অফিস বান্দরবানের সহযোগিতা পার্বত্য জেলা পরিষদের সভাকক্ষে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। এসময় জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, পুলিশ সুপার জেরিন আখতার, জেলা পরিষদের মূখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম কাউছার হোসেন, মৎস্য অধিদপ্তর চট্টগ্রামের বিভাগীয় পরিচালক এসএম মহিব উল্লাহ, পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে মৎস্য সম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক মোহাম্মদ ইয়াছিন, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা অনিল কুমার সাহা, সদর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ জিয়া উদ্দিনসহ বিভিন্ন সরকারি বেসরকারী কর্মকর্তা, মৎস্য ব্যবসায়ী ও চাষীরা উপস্থিত ছিলেন। পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে মৎস্য সম্পদ উন্নয়ন ও মৎস্য চাষের মাধ্যমে মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি, পার্বত্য জনপদের পুষ্টির চাহিদা পূরণ, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও আয় বৃদ্ধি করার জন্য নানা পরামর্শ ও কৌশল প্রদান করে এবং সবাইকে নিজ নিজ সামর্থ্য ও জায়গা অনুযায়ী ক্রিক,জলাশয়,জলাধার সৃষ্টি করে মৎস্য চাষ বৃদ্ধি করার আহবান জানান বক্তারা। পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে মৎস্য সম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক মোহাম্মদ ইয়াছিন বলেন, তিন পার্বত্য জেলার মৎস্য সম্পদ উন্নয়ন ও মৎস্য চাষের মাধ্যমে মাছের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ১১৮ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি প্রকল্প বাস্তবায়নের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ২০২৪ সালে প্রকল্পটি শেষ হবে আর এ প্রকল্পের মাধ্যমে তিন পার্বত্য জেলা (বান্দরবান, রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ি) ২৬টি উপজেলায় মৎস্য চাষ সম্প্রসারণের লক্ষ্যে ক্রিক উন্নয়নের জন্য বাঁধ ও ড্রেন নির্মাণ,ক্রিক মেরামত ও সংরক্ষণ,প্রদর্শনী খামার স্থাপন,মৎস্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা,কর্মচারী ও সুফলভোগীদের দক্ষতা উন্নয়নসহ বিভিন্ন কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে। এদিকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, শুধু প্রকল্প এনে টাকা পয়সা শেষ করলে হবে না,প্রকল্পের সঠিক বাস্তবায়ন যাতে হয় সেটা সকলের নজর দিতে হবে। উপজেলা চেযারম্যান, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও জনপ্রতিনিধিদের পার্বত্য এলাকায় চলমান কাজের গুনগতমান নজরদারিতে রাখা ও কোন অভিযোগ পেলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাখিল করার আহবান জানান। প্রকল্পের জন্য বাহির থেকে জনবল নিয়োগ না দিয়ে আগে প্রাধান্য দিয়ে পার্বত্য এলাকা থেকে যোগ্য ও কর্মঠ ব্যক্তিদের এ ধরণের কাজে নিয়োগ প্রদানের জন্য প্রকল্প পরিচালককে নির্দেশনা প্রদান করে পার্বত্যমন্ত্রী।