পাহাড়তলী রেলওয়ে বাজার এ-ব্লক ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভা

53

পাহাড়তলী রেলওয়ে বাজার এ-ব্লক ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির এক সমন্বয় সভা ১১ ডিসেম্বর বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টায় সংগঠনের নিজস্ব কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন মো. কামাল উদ্দিন। সভায় রেলওয়ে কর্মকর্তাদের অনীহার কারণে সরকারি রাজস্ব পরিশোধ করতে না পারার অভিযোগ করেন ব্যবসায়ীরা। সভায় বক্তারা বলেন, নগরীর শতবর্ষের পুরোনো রেলওয়ে পাহাড়তলী বাজারে রয়েছে প্রায় ৯শ’ থেকে সাড়ে ৯শ’ ব্যবসায়ী। এখানকার ব্যবসায়ীরা রেলওয়ে খাজনা, সিটি কর্পোরেশনের ট্রেড লাইসেন্স, কৃষিপণ্য লাইসেন্স, ফুড গ্রেইন লাইসেন্স নেওয়ার পাশাপাশি সরকারি যাবতীয় রাজস্ব নিয়মিত পরিশোধ করে আসছে। বর্তমানে পাহাড়তলী বাজারের ভেলুয়া দিঘীর দক্ষিণ পাড়ের এ-বøকের দোকান মালিকদের বর্ধিত অংশের খাজনা গ্রহণ করার জন্য রেলওয়ের প্রতি দাবি জানানো হয়। বকেয়া পুরো খাজনা পরিশোধসহ লিজ নবায়ন করা হলে সরকার একদিকে বড় অংকের রাজস্ব পাবে, অন্যদিকে শতাধিক ব্যবসায়ী কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতি থেকে রক্ষা পাবে বলে তারা জানান। সভায় পাহাড়তলী রেলওয়ে বাজার ভেলুয়ারদিঘীর দক্ষিণ পাড়ের এ-বøকের ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন। বক্তব্য রাখেন, ডি.টি রোড বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এস এম নিজাম উদ্দিন, সমিতির সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আজাদ, সাধারণ সম্পাদক আবদুল হাসেম, যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ মামুন, অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ এমদাদুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক জুলফিকার আলী হায়দার, ব্যবসায়ী মোহাম্মদ ছাইদুল হক, জাহাঙ্গীর আলম, আহমদ হোসেন আমু, হাজী সেলিম উল্লাহ সওদাগর, মোহাম্মদ আবুল বাহার প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি