পদ্মায় ডুবে গেছে ১৭টি ট্রাক

8

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাটে যানবাহন নিয়ে একটি ফেরি কাত হয়ে পদ্মা নদীতে আংশিক ডুবে গেছে। ফেরিতে থাকা অন্তত ১৭টি ট্রাক পানিতে ডুবে গেছে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। আমানত শাহ নামের এই ফেরিটি দৌলতদিয়া থেকে পাটুরিয়া আসছিল। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্পোরেশনের সহকারী মহাব্যবস্থাপক নাসির মোহাম্মদ চৌধুরী বলেছেন, সকাল আনুমানিক ৯টার দিকে দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ১৭টি ট্রাক নিয়ে আমানত শাহ ফেরিটি পাটুরিয়া ঘাটে আসে। এখানে পাঁচ নম্বর ঘাটে লাগানোর পর হঠাৎ ফেরিটি কাত হয়ে আংশিক ডুবে যায়। ফেরিতে থাকা ১৭টি পণ্যবাহী ট্রাকের মধ্যে মাত্র ৩টি ট্রাক নামতে সক্ষম হলেও বাকি ১৪টি ট্রাক ও মোটরসাইকেল নিয়ে ফেরিটি উল্টে যায়। এই ফেরিতে শুধুমাত্র পণ্যবাহী ট্রাক ছিল বলে তিনি জানান।
মানিকগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো. শরিফুল ইসলাম বলেছেন, দুর্ঘটনার পরপরই আমাদের টিম এবং ডুবুরিরা উদ্ধার অভিযান শুরু করে। হতাহত বা কেউ নিখোঁজ রয়েছে বলে আমরা খবর পাইনি।
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্পোরেশনের উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. জিল্লুর রহমান বলেছেন, ‘হয়তো কোন কারণে ফেরিটি নদীতে থাকতেই পানি উঠছিল। তখন ঘাটে আসতে আসতে নীচে বেশি পানি জমে গেছে। যানবাহন ওঠার সময় একদিক কাত হয়ে তখন ডুবে গেছে। তবে কেন ফেরির এই দুর্ঘটনা ঘটল, এ বিষয়ে তদন্ত করে দেখা হবে বলে তিনি জানান।
রাজবাড়ী থানার ওসি ফিরোজ কবিরও বলছেন, ফেরির নিচে যে ডাম্প (ফাঁকা অংশ) থাকে, সেখানে পানি ঢোকায় সেটি ডুবে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, ফেরিটি ডুবে যায়নি, হেলে পড়েছে।
ফেরির লোকজন ও ট্রাকচালকদের মতে, ফেরিতে ১৭টি ট্রাক, একটি কার ও কয়েকটি মোটরসাইকেল ছিল। শুধু তিনটি ট্রাক নামতে পেরেছে।
ঘটনার পর, ঘাটের ট্রলার চালক ও বিআইডব্লিউটিসির ভাসমান কারখানার লোকজন ডুবন্ত ট্রাকচালক ও লোকজনকে উদ্ধার করেন। এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। কেউ নিখোঁজ আছেন এমন তথ্যও পাওয়া যায়নি। খবর বার্তা সংস্থার।
তদন্তে ৪ সদস্যের কমিটি : মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ঘাটে নোঙর করার পর ফেরি উল্টে যাওয়ার ঘটনায় চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, ফেরি উল্টে যাওয়ার ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সানোয়ারুল হককে আহŸায়ক করে চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশন আরিচা শাখার উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. জিল্লুর রহমান জানান, ফেরি উল্টে যাওয়ার খবর পাওয়ার পর ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি ইউনিট কাজ শুরু করে।
৪০ বছরের বেশি সময় ধরে চলছিল ফেরিটি : মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাটে বুধবার সকালে কাত হয়ে আংশিক ডুবে যাওয়া রো রো ফেরি আমানত শাহ ৪০ বছরের বেশি সময় ধরে চলাচল করছিল। অভ্যন্তরীণ নৌচলাচল অধ্যাদেশ অনুযায়ী, একটি নৌযানের নিবন্ধনের মেয়াদ ৩০ বছর হয়। বিশেষ জরিপের (ফিটনেস) মাধ্যমে এরপর দুবার পাঁচ বছর করে নিবন্ধনের মেয়াদ বাড়ানো যায়। তবে ৪০ বছরের বেশি সময় কোনোভাবেই কোনো নৌযান চলাচল করতে পারে না।
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডবিøউটিসি) নৌযানের তালিকা অনুযায়ী, ফেরি আমানত শাহ ১৯৮০ সালে তৈরি। ৩৩৫ জন যাত্রী ও ২৫টি যানবাহন বহন করতে পারে এটি। ৮০৬.৬০ টন ওজনের ফেরিটি সর্বোচ্চ ১০.২৫ নটিক্যাল মাইল গতিতে চলতে পারে।
বিআইডবিøউটিসি আরিচা কার্যালয়ের সহকারী মহাব্যবস্থাপক (মেরিন) আবদুস সাত্তার বলেন, রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ১৭টি পণ্যবাহী ট্রাক নিয়ে ফেরিটি ছেড়ে আসে। সকাল পৌনে ১০টার দিকে পাটুরিয়া ঘাটে ভিড়ে এটি কাত হয়ে আংশিক ডুবে যায়। আমানত শাহ ফেরিটি প্রথম দিকের আনা। এর বয়স ৪০ বছর পার হয়ে গেছে।