নিহত নাবিকের পরিবারকে আর্থিক অনুদান প্রদান

6

মিরসরাই প্রতিনিধি

চলতি বছরের ১৯ মার্চ মাদার ভেসেল থেকে সিমেন্ট ক্লিংকারবোঝাই করে এসে চট্টগ্রাম বন্দরের বর্হিনোঙ্গরে অবস্থান করা ‘এম ভি টিটু-১৪’ নামে জাহাজ ডুবে মিরসরাইয়ের দুই নাবিক নিহত হন। এই জাহাজ ডুবির ঘটনায় নিহতরা হলেন মিরসরাই উপজেলার ৫নং ওসমানপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের বাঁশখালী গ্রামের মৃত লুৎফুর রহমানের পুত্র শেখ ফরিদ এবং একই উপজেলার ৬নং ইছাখালী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ ভূঁইয়া গ্রামের লাভলু ভূঁইয়া (৩৮)। শেখ ফরিদ ওই জাহাজে লস্কর এবং লাভলু ভূঁইয়া গ্রিজার হিসেবে দায়িত্বরত ছিল। গত ১৭ মে শেখ ফরিদের পরিবারকে দেড় লক্ষ টাকা এবং লাভলু ভূঁইয়ার পরিবারকে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করা হয় মিরসরাই সাধারণ নাবিকদের পক্ষ থেকে। মিরসরাই নাবিক কল্যাণ বহুমুখী সমিতির সহ-শ্রমিক সম্পাদক এবং বাংলাদেশ নৌ-যান শ্রমিক ফেডারেশনের নারায়নগঞ্জ জেলা কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মেজবাহ উদ্দিন মাস্টারের উদ্যোগে আর্থিক অনুদান সংগ্রহ করা হয়। মঙ্গলবার আর্থিক অনুদান প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ নৌ-যান শ্রমিক ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি শাহ আলম ভূঁইয়া, সহ-সভাপতি তালেম উল্ল্যাহ ফকির ড্রাইভার, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নবী আলম মাস্টার, সহ-সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন মাষ্টার, উপ-কমিটির সদস্য আনোয়ার মাষ্টার, সুমন মাস্টার, চট্টগ্রাম নাবিক কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক নুরের নবী মাস্টার, ফ্রেন্ডস সার্কেল সঞ্চয় সমিতির সভাপতি মাহবুব আলম, বাংলাদেশ লাইটারেজ শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম পেয়ার, হানিফ ড্রাইভার, বাহার, ওচমানপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মজিবুল হক, ইছাখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আজম খান প্রমুখ।