নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্যবৃদ্ধির কারণে কর্মচারীরা দিশেহারা

7

 

নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধি এবং ৫ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকারী কর্মচারী সমন্বয় পরিষদের এক জরুরি সভা পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি আব্দুল হান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সমন্বয় পরিষদের অতিরিক্ত মহাসচিব মোঃ আজিম। বক্তব্য রাখেন, পরিষদের কার্যকরী সভাপতি মোঃ সেলিম ভুইয়া, সহ-সভাপতি মো. সরোয়ার কবির, মোঃ আলী আহমদ, আম্বিয়া বেগম পলি, সামশুল হক সুজন, অতিরিক্ত মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক, মনির আহমেদ, যুগ্ম মহাসচিব খন্দকার ফিরোজ হোসেন, চট্টগ্রাম জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. সামশুল ইসলাম, আব্দুল কাদের, ওহিদুল রহমান, সাউদ নূর-এ সফিউল কাদের, নজরুল ইসলাম রানা, মো. বদিউর রহমান, আবদুল মতিন পাঠোয়ারী, মো. মোক্তার হোসেন প্রমুখ। সভায় বক্তাগণ বলেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর লাগামহীন মূল্য বৃদ্ধির কারণে কর্মচারীগণ আজ দিশেহারা। তাই অবিলম্বে ৯ম বেতন কমিশন গঠন, আউটসোর্সিং নিয়োগ প্রথা বাতিল, ৪০% মহার্ঘ ভাতা প্রদান, সচিবালয়ের ন্যায় সারাদেশের কর্মচারীদের পদবী পরিবর্তন, পুলিশের ন্যায় রেশন প্রদান, শতভাগ পেনশন চালুকরণ, টাইমস্কেল সিলেকশন গ্রেড পুনঃবহাল, পোশাকের টাকা বেতনের সাথে প্রদান, নিয়োগের ক্ষেত্রে রেলের ন্যায় ৪০% পোষ্য কোটা সংরক্ষণ রাখা, সুদমুক্ত গৃহঋণ প্রদানসহ সমন্বয় পরিষদের ৫ (পাঁচ) দফা দাবি বাস্তবায়নের জন্য সরকারের নিকট জোর দাবি জানানো হয়। পরিশেষে আগামী ২৪ ডিসেম্বরের মধ্যে উক্ত ৫ (পাঁচ দফা) দাবিসমূহ বাস্তবায়ন না হলে ২৫ ডিসেম্বর “বাংলাদেশ সরকারী কর্মচারী সমন্বয় পরিষদ ও বাংলাদেশ চতুর্থ শ্রেণী সরকারি কর্মচারী সমিতি” দুইটি বৃহত্তম সংগঠনের পক্ষ থেকে জাতীয় প্রতিনিধি সভার মাধ্যমে আন্দোলনের পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। সভায় বিভিন্ন দপ্তর প্রতিষ্ঠান/ আঞ্চলিক/ ইউনিট কমিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।