নিজস্ব প্রযুক্তির মিসাইল উন্নয়নে ভারতীয় বিমানবাহিনীর বড় প্রস্তাব

9

পরদেশ ডেস্ক

স্থানীয়ভাবে সমরাস্ত্র ব্যবস্থার উন্নতি সাধনে ১ হাজার ৪০০ কোটি রুপির একটি প্রস্তাব পেশ করেছে ভারতীয় বিমানবাহিনী। সরকারের কাছে রুদ্রম নেক্সট-জেনারেশন অ্যান্টি রেডিয়েশন মিসাইল (এনজিএআরএম) তৈরির জন্য এমন প্রস্তাব পেশ করেছে বিমানবাহিনী। শত্রু রাডার শনাক্ত ও ধ্বংসে এসব মিসাইল ব্যবহার করা হবে বলে জানায় ভারতীয় প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা। ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআই এর এক প্রতিবেদনে এমনটা জানানো হয়।
প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা জানান, উন্নত ক্ষেপণাস্ত্র উন্নয়নের জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দের উদ্দেশ্যে একটি প্রস্তাবনা দ্রæতই প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দেওয়া হবে। তারা জানান, এ ধরনের অ্যান্টি-র‌্যাডিয়েশন মিসাইল ইতোমধ্যেই ভারতীয় বিমানবাহিনীর সুখোই-৩০ জঙ্গি বিমান থেকে পরীক্ষামূলক ব্যবহার করা হয়েছে। এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র ভারতীয় বিমানবাহিনীকে শনাক্ত হওয়া ছাড়াই শত্রæর রাডার ব্যবস্থা ধ্বংসে সক্ষম হবে।এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র ভারতীয় বিমানবাহিনীর সুখোই-৩০ ও মিরেজ-২০০০ জঙ্গি বিমান থেকে নিক্ষেপ করা যাবে। এ ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত হানার সক্ষমতা অত্যন্ত নিখুঁত এবং এটি বন্ধু থাকা রাডার ব্যবস্থাকেও শনাক্ত করে ধ্বংস করতে সক্ষম। রুদ্রম এনজিএআরএম ভারতীয় সমরাস্ত্র খাতের তৈরি প্রথম অ্যান্টি-র‌্যাডিয়েশন মিসাইল যা শব্দের দুই গুণ বেশি গতিতে আঘাত হানতে সক্ষম।